ERP_Software

 

ব্যবসার সাফল্যের মূল হল ব্যবসার খুঁটিনাটি সব কিছুর হিসাব রাখা নির্ভুল ভাবে। ব্যবসার একটা গুরুত্ব পূর্ণ উপাদান হল টাকা। ব্যবসা হল একটা জীবন্ত জীবের মত। বেঁচে থাকার জন্য যেমন খাদ্য লাগে তেমনি ব্যবসারও টিকে থাকার জন্য খাদ্য লাগে। আর সেই খাদ্য হল ভাল কর্ম পরিকল্পনা ও টাকা। নিজের টাকা হোক আর কোন অ্যাঞ্জেল ইনভেস্টরের টাকা হোক, টাকার পুঙ্খানু পুঙ্খও হিসাব ও সর্বোচ্চ সার্থক ব্যাবহারের উপরেই ব্যবসার সাফল্য নির্ভর করে।

তাই ব্যবসার টাকা কিভাবে খারচ হচ্ছে সেটার পুঙ্খানু পুঙ্খও হিসাব আপনার থাকতেই হবে। আর ইনভেস্ট করা টাকা আপনার ব্যবসার স্বাস্থ্য ভাল করছে না কি খারাপ করছে সেটার থেকেই আপনি আপনার ব্যবসাইক পরিকল্পনা ঠিক করতে পারবেন। কারন বেশি বা অপরিকল্পিত ভাবে খেলে যেমন আপনার স্বাস্থ্য খারাপ হবে আবার কম খেলেও আপনার স্বাস্থ্য রুগ্ন হয়ে যাবে। ব্যবসার ন্যাচারও ঠিক আপনার সাস্থের মত। অযথা টাকা নষ্ট করলে আপনি আপনার ব্যবসারই ক্ষতি করবেন। তাই ব্যবসার সব কিছু নখদর্পণে রাখা খুবি জরুরী।

01@2x

আমাদের দেশের ব্যবসায়ীরা হাতে কলমে হিসাব রাখতে অভ্যস্ত। আর হাতে কলমে হিসাব রাখতে গিয়ে অনেক সময় লোকসান গুনতে হয়। পৃথিবীর উন্নত সব দেশে ব্যবসার সব হিসাব নিকাশ সফটওয়্যার এর মাধ্যমে রাখে কারন মানুষের ভুল হতে পারে কিন্তু ভাল সফটওয়্যার এর ভুল হতে পারে না।

সফটওয়্যার দিয়ে কি কি করতে পারেন ও এতে আপনার কি কি লাভ হবেঃ

  1. সফটওয়্যার আপনার মূল্যবান সময় যেমন বাঁচিয়ে দিবে, তেমনি আপনার খরচ অনেক কমিয়ে দিবে। অপচয়, প্রোডাক্ট হারিয়ে যাওয়া, চুরি যাওয়া বা হিসাব না মেলার কারণে লোকসান কমবে।
  2. ব্যবসার হিসাব-নিকাশ রক্ষার জন্য রেজিস্টার বুক, ওয়ার্ক অর্ডার বুক, ইনভয়েস বুক, বা অন্যান্য হিসাবের খাতা নিয়ে আর মূল্যবান সময় নষ্ট করার দরকার নেই।
  3. আপনার সব হিসাব-নিকাশ রক্ষা করবে সফটওয়্যার। সুতরাং হাতে-কলমে কাজ করতে গিয়ে আপনার যে ভুল হওয়ার আশংকা ছিল, সফটওয়্যার ব্যবহারে তা আর থাকছে না।
  4. সামান্য ক্লিক এর মাধ্যমে মুহূর্তেই যে কোন তথ্য বা রিপোর্ট (সেলস রিপোর্ট, স্টক রিপোর্ট, ইত্যাদি) আপনার সামনে চলে আসবে।
  5. আপনি যে কোন ক্যাটাগরি অনুসারে আপনার ব্যবসার রিপোর্ট গুলো জানতে পারবেন। কোন প্রোডাক্ট গুলোর এক্সপায়ারি ডেট দ্রুত শেষ হবে তাও আপনি জানতে পারবেন। কাজেই আপনি সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন, আপনার কোন প্রোডাক্ট এর স্টক বাড়ানো উচিৎ আর কোন প্রোডাক্ট দ্রুত বিক্রি করে দেয়া উচিৎ।
  6. আপনার ব্যবসার গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট গুলো হারিয়ে যাওয়ার কোন ভয় থাকছে না। সবকিছু জমা থাকবে সফটওয়্যারে। চাহিদামত সার্চ দিয়ে মুহূর্তেই বের করে নিন প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট।
  7. কত টাকা খরচ করতেছেন।
  8. টাকা কি কি খাতে খরচ হচ্ছে।
  9. যে টাকা খরচ করতেছেন সেই সব টাকার ফিড ব্যাক কেমন।
  10. মার্কেটিং এর জন্য কোথায় কত টাকা খরচ করতেছেন।
  11. যে যে মাধ্যমে মার্কেটিং করতেছেন সেই সেই মাধ্যম থেকে কেমন রেস্পন্স পাচ্ছেন। আপনি যদি একাধিক মাধ্যমে আপনার ব্যবসার প্রচারণা করেন তাহলে আপনাকে অবশ্যই এটা হিসাব রাখতে হবে কোন অ্যাড থেকে কত কাস্টমার আপনার কাছে আসতেছে।
  12. আপনার ইনভেন্টরির কি অবস্থা। রিটার্ন প্রোডাক্ট কত? ড্যামেজ প্রোডাক্ট কত? সাপ্লাইয়ারদের সাথে লেনদেন এর কি অবস্থা?

 

 

ব্যবসায়ীক সফটওয়্যার ব্যবহার এর ফলে আপনি যেমন এই ব্যাপারগুলো পর্যবেক্ষণ করতে পারবেন তেমনি পাশাপাশি আপনি আপনার কর্মপরিকল্পনা ঠিক করতে পারবেন।

আপনি যে তিনটি বিষয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন তা হলঃ

ক) সঠিক মার্কেটিং ফিলসফি,

খ) প্রতিযোগিতা মূলক কৌশল,

গ) বিজনেস মডেল।

কি কি সফটওয়্যার ব্যবসার জন্য প্রয়োজন?

১) ইনভেন্টরি সফটওয়্যার

২) প্রোডাকশন ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার

৩) অ্যাকাউন্টং সফটওয়্যার

৪) শপ ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার

৫) কাস্টমার রিলেশন ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার৬)

উপরে কথা গুলো খুবি কমন কথা। এগুলো সব ব্যবসাতেই লাগে। কিন্তু আপনাকে বুজতে হবে আপনার ব্যবসাতে আপনার কি লাগবে। সে ভাবে যদি কোন সফটওয়্যার করেন তবে সেটা হবে আপনার ব্যবসার জন্য খুবি ভাল। সুতরাং আপনার ব্যবসার জন্য সফটওয়্যার ডেভেলপ করেতে গেলে একটা ভাল ও অভিজ্ঞ আই.টি ফার্ম থেকে করানো ভাল।

রেজিস্টার আই.টি ফার্ম দিয়ে কাজ করানো ভাল কারন এতে করে সাপোর্ট ভাল পাওয়া যাবে। সফটওয়্যার নেওয়াই শেষ না। এটাই আমাদের ভুল ধারনা। সফটওয়্যার এর সাপোর্টও অনেক গুরুত্ব পূর্ণ। কোন সমস্যা হলে সমস্যার সমাধান ও পেতে হবে। ভাল বিশ্বস্ত কোন ফার্ম দিয়ে কাজ করালে ভবিষ্যৎ-এ ভাল হবে।

যেকোনো পরামর্শের জন্য আমার সাথে কথা বলতে পারেন।

অমিত রায়,

সি.ও.ও, হ্যাশট্যাগ আই.টি,

0197 88 555 81,

skype: amithashtag

amit@hashtaggroup.org

www.hashtaggroup.org

1,304 total views, 11 views today

Comments

comments