জুলাই মাসে অ্যামাজন ইন্ডিয়ার দাপট

425
14199525_733036280167636_8322762891461449415_n

জুলাই মাসে অ্যামাজন ইন্ডিয়ার দাপট 

২০১৬ সালের  জুলাই মাসে gross merchandise value(GMV) এর দিক থেকে ইন্ডিয়ার দেশী প্রভাবশালী মার্কেটপ্লেস ফ্লিপকার্ট কে পিছনে ফেলে দিয়ে এগিয়ে এসেছে অ্যামাজনAmazon এর GMV যেখানে গত মাসে ৩০০ মিলিয়ন ডলারের কিছুটা বেশি , সেইখানে ফ্লিপকার্টের সেল কিছুটা কম , তৃতীয় জায়গায় আছে তৃতীয় ই কমার্স কোম্পানি স্ন্যাপডিল যার সেল প্রায় ৯০ মিলিয়ন ডলার । কিন্তু এইখানে , ফ্লিপকার্টের GMV তে এটির রিটেইলার Myntra এবং Jabong এর সেলের হিসাব উল্লেখ নায় এবং স্ন্যাপডিলের GMV তে তাদের payment সার্ভিস Freecharge এর হিসাব উল্লেখ নায় । সেই দেশে এমাজন তিন বছর আগে থেকে তাদের অপারেশন শুরু করেছে । ভারতের ইকমার্স মার্কেটে এমাজনের দ্রুত এগিয়ে যাবার কিছু কারন নিচে দেয়া হলঃ

অ্যামাজনের  5 বিলিয়ন ডলার  বিনিয়োগের প্রতিশ্রুতিঃ
ভারতের ই কমার্স মার্কেটে গত তিন বছরে অনেক কিছু পরিবর্তন হয়েছে । অ্যামাজন খুব ভাল ভাবে ভারতের রেগুলেটরী স্ট্যান্ডার্ড এর সাথে খাপ খেয়ে নিয়েছে এবং ক্রেতাদের সুবিধার জন্য সহজে ব্যবহারযোগ্য ইকো সিস্টেম তৈরি করে চলছে । যখন তার প্রতিযোগী কোম্পানিগুলো মূলধন উঠাতে হিমসিম খাচ্ছিল , সেইখানে অ্যামাজন বিশাল পরিমানে ইনভেস্ট করেছে এবং তার সুফলও তারা পাচ্ছে ।

গত কয়েক বছর ধরে ভারতের ই-রিটেইলারগুলো কাস্টমারদের আকর্ষণ করার জন্য এবং মার্কেট শেয়ারের জন্য প্রচুর টাকা খরচ করছে । কিন্তু বিনিয়োগক্রীত মূলধন কম উঠাতে পারছে । একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে , যে তাদের চাহিদার ১৫৳ বিলিয়ন , এবং ৳৬.৫ বিলিয়ন মূলধন উঠাতে ব্যর্থ হয়েছে । ফ্লিপকার্টের ইনভেস্টর Morgan Stanley এর শেয়ারের ভ্যালু একদম ২৭% কমে , ১১ বিলিয়নে দাঁড়ায় ।

প্রতিযোগীদের ছন্দ পতনঃ

ফ্লিপকার্টের শুধুমাত্র পিসি ওয়েবসাইট থেকে সরে এসে শুধুমাত্র apps নির্ভর কৌশলে , অ্যামাজনের এখান থেকেও লাভবান হয়েছে । ফ্লিপকার্ট পরে পিসি ওয়েবসাইটে ফেরত আসলেও , কিছু কাস্টমার হারিয়ে ফেলিয়েছিল । মে – জুন মাসে ফ্লিপকার্ট ইনভেন্টরি বেইজড থেকে অনলাইনে বিক্রি করতো , কিন্তু অপর দিকে সেই মাসের অ্যামাজনের ছিল সেরা ব্র্যান্ডদের নিয়ে মার্কেট এবং কাস্টমার সচেতেনতা । অ্যামাজন প্রোডাক্ট লিস্টিং এর দিক থেকেও এগিয়ে ছিল , ,যেখানে ফ্লিপকার্টের ছিল ৪০ লক্ষ প্রোডাক্ট এবং ৩৫ লক্ষ প্রোডাক্ট ছিল স্ন্যাপডিলের , সেখানে অ্যামাজনের ৬৫ লক্ষ প্রোডাক্ট ছিল ।

লেখকের  লেখা আরও আর্টিকেল পড়তে এই লিঙ্কে ক্লিক করতে পারেন ।

পার্থ প্রতীম মজুমদার : http://blog.e-cab.net/author/partho/

Source link : http://goo.gl/VRsQDQ

Comments

comments

About The Author



Hi , My name is Partho Pratim Mazumder . I am passionate of blogging ,Writing , Seo Analyst . I am hunger for gaining knowledge perfectly of any kind of specific topics , love to be updated with tech, ecommerce . I am passionated in literature too .Glad to be connect : www.facebook.com/partho.joss

No Comments

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *