ই-কমার্স ডেলেভারি সিস্টেমে ড্রোন এবং ড্রয়েড প্রযুক্তি

1020
ড্রোন ডেলেভারি সিস্টেম

ই-কমার্স ডেলেভারি সিস্টেমে  ড্রোন এবং ড্রয়েড  প্রযুক্তি

ই-কমার্স ব্যবসায় প্রোডাক্ট ডেলেভারি সিস্টেমে ড্রোন এবং ড্রয়েড  প্রযুক্তি এখন ব্যাপকভাবে আলোচনায় রয়েছে । প্রোডাক্ট ডেলেভারি  নিয়ে যখন বিশ্বের বড় বড় জায়ান্ট কোম্পানিগুলো চিন্তিত , তখন চিরাচরিত প্রোডাক্ট ডেলেভারির সিস্টেম থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টায় রয়েছে উন্নত বিশ্বের দেশগুলো । আমেরিকা , ইউরোপের বেশকিছু দেশ এখনই প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে প্রোডাক্ট ডেলেভারির নতুন চেষ্টা নিয়ে গবেষণা ও পরীক্ষামূলক কাজ যথারীতি শুরু করে দিয়েছে এবং এর মধ্যে “ড্রন” ও “ড্রয়েড” প্রযুক্তির সিস্টেম অনেকের কাছেই অধিক জনপ্রিয়তা পেয়েছে । বিশ্বের অন্যতম প্রধান ই-কমার্স কোম্পানি “আমাজন” তাদের ভবিষ্যৎ প্রোডাক্ট ডেলেভারি সিস্টেমে “ড্রন” ব্যবহার করার চেষ্টা করছে ।

 

ড্রোন ডেলেভারি সিস্টেম

 

 ডেলেভারি সিস্টেমে ড্রোন এবং ড্রয়েড প্রযুক্তি

ড্রোন ডেলেভারি সিস্টেম

 

ই-কমার্স ব্যবসায় প্রোডাক্ট ডেলেভারির ক্ষেত্রে প্রতিনিয়ত কোম্পানিগুলো চিন্তা করছে কিভাবে আরও কম সময়ে যানজটের সমস্যা এড়িয়ে ক্রেতার কাছে সহজে প্রোডাক্ট পৌঁছানো যায় । ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আমাজন এখনো এই প্রযুক্তি নিয়ে অনেক পরীক্ষামূলক কাজ করছে , কিভাবে সফলভাবে এর কার্যক্রম সম্পূর্ণ করা সম্ভব তা নিয়ে এখনো তাদের কাজ চলছে । কারণ , এতে করে প্রতিষ্ঠানগুলো প্রোডাক্ট ডেলেভারির ক্ষেত্রে সময় এবং খরচ এই দুই ক্ষেত্রেই অনেক বেশি সাশ্রয়ী হতে পারবে । ড্রোন প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রোডাক্ট ডেলেভারির বিষয়টা বর্তমান সময়ে সবচেয়ে বেশি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে এবং আগামী দশকের রিটেইল ইন্ডাস্ট্রির জন্যে এটি সবচেয়ে ভাল উদ্ভাবন হিসেবে বিবেচিত । যদিও আকাশ পথে প্রোডাক্ট ডেলেভারি করার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দেশের সরকারের অনুমতি লাগবে । ইতিমধ্যে, ডমিন’স নিউজিল্যান্ডে পিজা ডেলেভারির জন্যে পরীক্ষামূলকভাবে ড্রোন ব্যবহার করেছে । এছাড়া অস্ট্রেলিয়া পোস্ট ড্রোন ব্যবহার করে বাণিজ্যিকভাবে পার্সেল মানুষের ঠিকানায় প্রেরণের ক্ষেত্রে সাম্প্রতিক সময়ে পরীক্ষামূলক চেষ্টা করছে । ই-কমার্স কোম্পানিগুলো ড্রোন সিস্টেমে প্রোডাক্ট ডেলেভারিকে এই ডেলেভারি সমস্যার ভবিষ্যৎ সমাধান মনে করছে । অধিকাংশ ড্রোন ৪০০ ফুট ওপর দিয়ে ঘণ্টায় ৬০ মাইল বেগে যেতে সক্ষম ।  ড্রোন সাধারণত পাঁচ পাউন্ড ভরের সমপরিমাণ মালপত্র বহনে সক্ষম । আমাজন এর প্রায় ৮৬ ভাগ অর্ডারের প্রোডাক্ট এর ভর পাঁচ পাউন্ড এর চেয়েও কম, তাই এ ক্ষেত্রে তাদের প্রোডাক্ট শিপিং খরচ অনেক কমে যাবে । কারণ ড্রোন ব্যবহারের কারণে প্রতি ৩০ মিনিটের জন্যে এতে খরচ হবে প্রায় ১ ডলার ।

ড্রোন প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে জায়ান্ট ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো একই দিনে ক্রেতাকে তাদের প্রোডাক্ট শিপিং করতে সক্ষম হবে এমন অফার দিবে , এমনকি এর কারণে ক্রেতার অর্ডার দেয়ার ১ ঘণ্টার মধ্যে প্রোডাক্ট ক্রেতার ঠিকানায় পাঠানোও সক্ষম হবে । আর অল্প সময়ে অনলাইনে অর্ডার দিয়ে প্রোডাক্ট যেহেতু ড্রোন এর মাধ্যমে ক্রেতা সহজে পেয়ে যাবে , তাই ভবিষ্যতে ই-কমার্স ব্যবসার প্রসারও বৃদ্ধি পাবে ।

 

ড্রয়েড ডেলিভারি সিস্টেম

 ডেলেভারি সিস্টেমে ড্রোন এবং ড্রয়েড প্রযুক্তি

ড্রয়েড ডেলেভারি সিস্টেম

 

ড্রয়েড একধরণের ছোট বিশেষ রোবট, যা প্রোডাক্ট ডেলেভারির জন্যে ব্যবহৃত হবে। ছয় চাকা বিশিষ্ট এ যান রাস্তায় মানুষের পাশাপাশি চলে অনেকটা পথচারীর মতন । স্টারশিপ টেকনোলোজিস এর তৈরি এটি সাধারণত প্রতি ঘণ্টায় চার মাইল যায় , এবং এর স্টার্টআপ এসেম্বল করে স্কাইপ এর প্রতিষ্ঠাতা ইঞ্জিনিয়াররা । একেকটি ড্রয়েড ২০ থেকে ৩০ পাউন্ড ভরের মতন হয় , অনায়াসে ২০ পাউন্ডের ভরের মালামাল বহন করতে সক্ষম । নিজে নিজে সিঁড়িতে ওঠতে পারে , লাইভ ভিডিও স্ট্রিমিংসহ- মাইক্রোফোন এর ব্যবস্থা আছে যাতে করে ড্রয়েড ক্রেতার সাথে সহজে যোগাযোগ করতে পারে । জিপিএস ট্র্যাকিং সিস্টেম আছে , এছাড়া সেন্সর সিস্টেম আছে যাতে করে রাস্তায় চলাচলে কোন সমস্যা হলে সেই উদ্ভূত পরিস্থিতি সহজে ড্রয়েড সামাল দিতে পারে । এতে বাল্ব লাইটের চেয়ে কম এনার্জি ব্যবহার হয় এবং এটি অনেকটা পরিবেশ উপযোগী করে তৈরি করা যাতে কোন প্রকার বিষাক্ত ধোঁয়া নির্গত না হয় । প্রায় ৩০ ভাগ পরিবহণ খরচ কমে যাবে, এবং গাড়ির পার্কিং নিয়েও কোন প্রকার সমস্যা পরতে হবেনা । ড্রয়েড যাবতীয় পুরো ডেলেভারি প্রসেসটাই সম্পূর্ণ করবে । যদিও আমেরিকায় এ পদ্ধতি এখনো ব্যবহার করা হয়নি । কাস্টমারদের সেবা দেয়ার জন্য কিছু লাক্সারি হোটেলে এখনই এ প্রযুক্তি ব্যবহার শুরু হয়েছে , মূলত রুম সার্ভিস দেয়া শুরু হয়েছে ড্রয়েডের মাধ্যমে ।

 

 

ই-কমার্স ক্ষেত্রে তাই প্রোডাক্ট ডেলেভারি সিস্টেমে ড্রোন এবং ড্রয়েড  প্রযুক্তি ব্যবহার এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র । এতে করে ডেলেভারি সিস্টেমে প্রতিষ্ঠানগুলো নতুন যুগের আরম্ভ করবে ।

 

সূত্রঃ

সিএনএন

বিজনেস ইনসাইডার

 

শুভেচ্ছা সবাইকে ,

সবাই ভালো থাকবেন

For Facebook profile : Nazmul Hasan Majumder

 

____________________

আরও লেখাসমূহ :

১।অ্যামাজন এফবিএ (FBA) বা “ফুলফিলমেন্ট বাই অ্যামাজন

২। ই-মেইল মার্কেটিং টুল : মেইলচিম্প | Mailchimp

৩। সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কিং বা এসইও কিং | SEO KING Search Engine Optimization King”

 

৪। কমার্স সাইট কিভাবে ক্রেতার নির্ভরতা অর্জন করবে( SSL part)

৫। কমার্স বিজনেস কোম্পানি মডেল

 

৬। কমার্স সাইট ফর কাস্টমার (ডোর টু ডোর)

 

৭। কমার্স সাইটে প্রোডাক্ট রিভিউ কনটেন্ট কিং

 

৮। কমার্স সাইট বিজ্ঞাপন কৌশল

৯। কমার্স সাইটের বিজ্ঞাপনের জন্যে ফেসবুকে “ Page Post Engagement বুস্ট পোস্ট” !!!!!

 

১০। কমার্স সাইটে বিজ্ঞাপন হিসেবে এনিমেশন

 ১১ কমার্স সাইটের বিজ্ঞাপনএর জন্যে ফেসবুক পেজ থেকে কিভাবে ভিডিও মার্কেটিং করবেন !!!!

 

কমার্স সাইটের বিজ্ঞাপনের জন্যে ফেসবুকে Page Promote কম খরচে !!! !!! !

Comments

comments

About The Author



Hey, My name is Nazmul Hasan Majumder . I'm passionate about writing & Seo Analyst, love to work on Animation & Web Development. All time, I usually try to up to date on tech stuff & E-Commerce industry,especially on marketing strategy & software of online world. You can join me on Facebook : https://www.facebook.com/nazmulhasanmajumder