বিজনেস এসোসিয়েশন এর মেম্বারশিপ

বিজনেস এসোসিয়েশন এর মেম্বারশিপ কেন গুরুত্বপূর্ণ

Jahangir Alam Shovon

আমাদের দেশে নতুন উদ্যোক্তারা ডিজিটাল টেকনোলজি সম্পর্কে তুলনামূলক ভাল জ্ঞান রাখলেও দেখা যায় আইন ও কৌশলগত বিষয়ে তাদের প্রচুর প্রশ্ন থাকে? সে আলোকে আজকের এই লেখা।

প্রথম কথা হলো ব্যবসায়িরা কেন বিভিন্ন ট্রেড এসোসিয়েশন এর মেম্বার হন?

১। যিনি যে ব্যবসা করেন যখন তিনি সে ট্রেড এসোসিয়েশন এর মেম্বার হন তখন তাকে তার সাপ্লায়ার বা ভেন্ডররা বিশ্বাস করে যে, তিনি ২ দিনের জন্য এখানে আসেননি তিনি দীর্ঘমেয়াদে ব্যবসা করবেন তাই তার সাথে কাজ করা যায়। ই-কমার্স সেক্টরে বিশ্বাসটা আরো বেশী গুরুত্বপূর্ণ।

২। যখন ট্রেড এসোসিয়েশন এর লোগো ব্যবহার করেন তখন ক্রেতা বা সাধারণ মানুষ ওই প্রতিষ্ঠানকে বিশ্বাস করে যেমন, REHAB এর লোগো থাকলে জনসাধারণের বিশ্বাস তৈরী হয় যে, এই হাউজিং কোম্পানী প্রতারণা করবেনা। একটি অনলাইন কোম্পানীর ক্ষেত্রেও বিশ্বাস তৈরী করতে এসোসিয়েশন মেম্বারশিপ দরকার।

৩। কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা যায় এসোসিয়েশন এর সদস্যপদ ছাড়া যেনতেনভাবে ব্যবসা করা যায়। কিন্তু অনেক সুবিধা পাওয়া যায়না। যেমন BASIS এর মেম্বার হওয়া ছাড়া কোনো সরকারী টেন্ডারে আবেদন করা যায়না। ভবিষ্যতে e-CAB এর ক্ষেত্রে এধরনের পরিস্থিতি তৈরী হতে পারে।

৪। কখনো কখনো ব্যাংক লোন, ফরেন ইনভেস্টমেন্ট, ব্যবসায়ী হিসেবে বিদেশ গমনের জন্য ভিসা আবেদনের ক্ষেত্রে ট্রেডবডির মেম্বার হতে হয়।

৫। আপনি যদি বিদেশী কোম্পানীর সাথে কোনো কাজ করতে চান সেক্ষেত্রে বিজনেস এসোসিয়েশন এর সদস্যপদ বা চেম্বারস অব কমার্সের সদস্যপদ ছাড়া অনেক কোম্পানী আপনার সাথে কাজ করবে না।

৬। সরকার চায় প্রতিটি বিজনেস সেক্টরের সমিতি বা সঙ্ঘ থাকুক। তাতে সরকারী যেকোনো নীতি বা নোটিশ তাদের এসোসিয়েশন এর মাধ্যমে সবাইকে জানানো যায়। তাই এসোসিয়েশন এর সাথে থাকলে আপনার ব্যবসা নিয়ে সরকার কি নীতি পলিসি তৈরী করছে তা আপনি জানতে পারবেন।

৭। কখনো কখনো সরকার তার সিদ্ধান্তগ্রহণের জন্য এসোসিয়েশন ডাকে। এবং তাদের পরামর্শ অনুসারে সরকার বিভিন্ন আইন প্রণয়ন, কর ধার্যকরণ, ভ্যাট ঠিক করণ ইত্যাদি করে থাকে। এসোসিয়েশন এর সাথে থাকলে আপনি সরকারকে এসব ব্যাপারে এসোসিয়েশন এর মাধ্যমে পরামর্শ দিতে পারবেন। কারণ সরকার কারো একার কথা শুনতে চাইবেনা। কিন্তু অনেকের কথা শুনতে চাইবে।

৮। সরকার যখন বিদেশের সাথে বাণিজ্য সম্প্রসারণের জন্য বিভিন্ন দেশে সফরে অথবা বিদেশ থেকে আসা বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের মিটিংএর সংশ্লিষ্ট এসোসিয়েশনকে সম্পৃক্ত করে। এতে করে এসোসিয়েশন এর সাথে যুক্ত থাকলে বিভিন্ন ধরনের ব্যবসার সুযোগ তৈরী হয়।

৯। কোনো কোম্পানী যদি গ্রাহকের সাথে কোনো প্রতারণা করে তাহলে গ্রাহক আইনগতভাবে মামলা দায়ের করার আগে এসোসিয়েশনকে অভিযোগ করতে পারে। তখন এসোসিয়েশন উভয়পক্ষের মধ্যে সমঝোতার মাধ্যমে বিষয়টি সমাধান করে দেয়। এটা না করে সরাসরি আইনের আশ্রয় নিলে দীর্ঘদিন আদালতে দৌড়ঝাপসহ উভয়ের অর্থ ও সময় নষ্ট হয়।

১০। যখন দেশের মধ্যে বা বিদেশের কোনো ব্যবসায়ির সাথে B2B লেনদেন হয়। কোনো কারণে একপক্ষ প্রতারিত হলে তখন এসোসিয়েশন এর মাধ্যমে লিখিত অভিযোগের মাধ্যমে কখনো কখনো সমস্যার সমাধান ও ক্ষতিপূরণ আদায় করা যায়।

 

দ্বিতীয়ত: বিজনেস এসোসিয়েশন এর মেম্বার না হলে কি হবে?

বিজনেস এসোসিয়েশন এর মেম্বার না হলেও আপনি ব্যবসা করতে পারবেন। তবে ব্যবসার ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা থেকে বুঞ্চিত হবেন। আপনি কি কি সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন তা নির্ভর করছে আপনি কি ব্যবসা করেন? আপনার কোন এসোসিয়েশন এর সাথে যুক্ত হওয়া উচিত। সে সেক্টরে সরকারের বিধি-বিধানগুলো কি কি? যেমন ATAB এর মেম্বার ছাড়া আপনি ট্রাভেল এজেন্সি পরিচালনা করতে পারবেন না।

 তৃতীয়ত: কেন সরকার চায় সব ব্যবসায়ীরা এসোসিয়েশন এর মধ্যে থাকুক

১। এতে করে যেকোনো নোটিশ এসোসিয়েশন এর মাধ্যমে দেয়া যায়।

২। সরকারের নীতি ও পলিসি তৈরীতে এসোসিয়েশন এর মাধ্যমে পরামর্শ নেয়া যায়।

৩। কেউ কোনো কোম্পানীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার আগে এসোসিয়েশন এর মাধ্যমে সমঝোতা করা যায়।

৪। সংবিধান অনুসারে যেকোনো লোক যেকোনো বৈধ ব্যবসা করতে পারে। তাই ট্রেড লাইসেন্স দেয়ার সময় অনেক সময় অনেককিছু ভেরিফাই করা যায় না। কিন্তু যখন এসোসিয়েশন তাদের মেম্বারশিপ দেয় তখন কিছু ভেরিফিকেশন হয় তাতে প্রতারণা কমে যায় এবং জনগন সেবা পায়। সরকার সব সময় চায় সঠিক ব্যবসায়িরা ব্যবসা করুক।

৫। আধুনিক বাজার ব্যবস্থায় ব্যবসায়ী এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো দেশজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে। তােই সবাইকে একটি প্লাটফর্মের আওতার আনতে সরকার ট্রেডবডিকে উৎসাহিত করে।

1,817 total views, 5 views today

Comments

comments