Online shopping concept.বাংলাদেশে শিপিং ব্যবস্থা

জাহা্ঙ্গীর আলম শোভন

ই কমোর্ ব্যবসায়ীরা পন্যের শিপিং নিয়ে অনেকগুলো টেনশনে আছেন।

১. পন্য কাদের মাধ্যমে পাঠাবেন। তারা বিশ্বস্ত কিনা?

২. যে পদ্ধতিতে পন্য পাঠানো হবে তা সঠিক কিনা? প্যাকিং ও সময়মত পৌছানোর ব্যাপারে কিভাবে নো টেনশন থাকা যায়?

৩. কাস্টমারকি আগে টাকা দেবে কিনা? যদি না দেয় তাহলে ক্যাশ ান ঢেলিভারী কিভাবে সহজ করা যায়।

৪. পন্য মিসিং বা দাম মিসিং এর সম্ভাবনা কতটুকু আর যদি হয় তাহলে এর সমাধান কি?

৫. চার্জ কেমন হয়? চার্রজর সাথে দামের সমনাবয় কিভাবে করবো।

প্রথমত: পন্য পাঠানোর অনেকগুলে উপায় আছে  েবাংলাদেশে।
কুরিয়ার: ৫শ গ্রাম ওজনের একটা পন্যেও জন্য কমপক্ষে ৫০ টাকা নেবে। প্রতি কেজি কোম্পানী ভেদে ২০ টাকা থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত দাম হয়। তবে এই রেট ঢাকা শহরের মধ্যে হলে তারা অনেক সময় কনসিডার করে। আবার কোনো কোনো এরিয়ার জন্য এই খরচ ৩ থেকে ৫ গুণ বাড়িয়ে দেয়। যেমন পার্বত্য চট্টগ্রাম, উত্তরাঞ্চলের রিমোট এরিয়া, কোনো দ্বীপ ইত্যাদিও ক্ষেত্রে নরমালে ১০০ টাকা হলে তখন এসব এলাকার জন্য ৩০০ টাকা হয়ে যায়।
পার্সেল: পার্সেলে সুবিধা হলো এতে খরচ কম আর কন্ডিশন ডেলিভারি দেয়া যায়। আর অসুবিধা হলো এতে হোম ডেলিভারি হয়না। পার্সেল কোম্পানীর অফিস থেকে ডেলিভারী নিতে হয়। এক্ষেত্রে প্রোডাক্টস তাদের স্থানীয় সেন্টারে গিয়ে পৌছলে তারা গ্রাহককে ফোন দিয়ে বলে যে আপনার নামে আমাদের কাছে একটি প্যাকেট এসেছে। আপনি এসে নিয়ে যান। এক্ষেত্রে যে ফোন নাম্বার লেখা থোকে সেটা দিয়ে পার্সেল অফিস যাচাই করে দেখে যে সঠিক গ্রাহক পন্যটা নিতে আসলো কিনা।

কন্ডিশন ডেলিভারি: কন্ডিশন ডেলিভারি হচ্ছে গ্রাহক মাল ডেলিভারি নেয়ার সময় দাম দিয়ে ডেলিভারি নেবে। সহজ কথায় বলে বাকিতে বিক্রি। গ্রাহক যখন সেটা গ্রহণ করবে তখন দাম দিয়ে গ্রহণ করবে। যেমন ধরুন আপনি একটি টিশার্ট বিক্রি করলেন তার দাম ৭০০ টাকা আর পার্সেল চার্জ ৫০ টাকা পার্সেল কোম্পানী ৭৫০ টাকা গ্রাহকের কাছ থেকে নিয়ে ডেলিভারি দেবে। এবং ৩/৪ দিন পর আপনি একটা মেসেজ পাবেন পার্সেল অফিস থেকে তারা বলবে আপনার ৭০০ টাকার একটা কন্ডিশন ডেলিভারির দাম এসেছে। উল্লেখিত মোবাইল নং সহ একজন ব্যক্তি আপনার অফিসের কাগজ বা মানি রিসিপ্ট নিয়ে এটা গ্রহণ করুণ । যারা ই কমার্স করবেন তাদের জন্য এটা নিরাপদ ও বিশ্বাস যোগ্য। সমস্যা হলে ১. এতে হোম ডেলিভারি হয়না ২. গ্রহাককে পার্সেল অফিসে এসে ফোন নং এর মাধ্যমে পরিচয় নিশ্চিত করে টাকা দিয়ে ডেলিভারি গ্রহণ করতে হয়। এতে প্যাকেট এর সাইজ অনুসারে ও ওজন হিসেবে রেট ঠিক হয়ে থাকে। ডকুমেন্ট এর রেট একটু কম হয় আর ভোগ্যপনের রেট একটু বেশী হয়। আমি আপনাদের ধারণার জন্য আমার অভিজ্ঞতার আলোকে বলছি- দুইফুট বাই দেড়ফুট সাইজের ৪০ কেজী ওজনের একটি বইএর প্যাকেট ২০০ টাকা-৩০০ টাকা এ সার্ভিস জেলা শহর পর্যন্ত । বাংলাদেশের কম উপজেলায় এ সার্ভিস রয়েছে।

ক্যাশ অন ডেলিভারী: বর্মানে শহর এলাকায় বিশেষ করে ঢাকা ও বিভিাগীয় শহর কোনো কোনো ক্ষেত্রে জেলাশহরে এই সার্সটি রয়েছে। এতে করে আপনি পন্য পাঠানোর পর ক্রেতা পন্য বুঝে নিয়ে আপনাকে মূল্য পরিশোধ করবে। বেশ কয়েকটি পন্য কোম্পানী এই কাজ করে থাকে।

ট্রান্সপোর্ট সার্ভিস: এটা পার্সেল সার্ভিস এর মতো। তবে সব কোম্পানীতে কন্ডিশন ডেলিভারি হয়না। এই সার্ভিসটা বাংলাবাজার, পুরনো ঢাকা, পল্টন এসব এলাকায় পর্যাপ্তভাবে রয়েছে। বিভিন্ন ট্রান্সপোর্ট কোম্পানী রয়েছে। চকবাজার বেসড কোম্পানীগুলোর রেট সস্তা। এক মণ ওজনের একটি প্যাকেট একশ টাকা দিয়েও বুকিং দেয়া যায়। পার্সেল সার্ভিস এর মতো এখানেও হোম ডেলিভারী হয়না। গ্রাহক তাদের সার্ভিস সেন্টার থেকে ডেলিভারী নিতে হয়।
এক্ষেত্রে বিভিন্ন যাত্রীবাহী বাস কখনো কখনো পন্য নেয়। তবে কোন লোক ছাড়া এভাবে পন্য পাঠানো ঠিক নয়। কারণ তারা এটার জন্য পারমিটেড নয়। তাছাড়া তারা কোন রশিদ দেবেনা। লঞ্চ গুলোও কম দামে পন্য বহন করে। সেক্ষেত্রেও হোম ডেলিভারী হয়না এবং ওরা রশিদ দেয়না।

এস এ পরিবহন: এস এ পরিবহন একমাত্র কোম্পানী যারা টাকা পয়সা ট্রান্সফার করে আবার প্রোডাক্টস শিপিং করে থাকে। কিন্তু এস এ পরিবহন হোম ডেলিভারী দেয়না। তাদের অফিস থেকে সংগ্রহ করতে হয়। যখন কাস্টমার পন্য সংগ্রহ করবে তখন তারা টাকা দিয়ে তা রিসিভ করবে। পরে এসএ পরিবহন কতৃপক্ষ দোকাণীকে টাকা পৌছে দেবে। এর মধ্যে কিন্ত ‍ডেলিভারী চার্জ রয়েছে।

ডাক বিভাগ: বাংলাদেশ ডাক বিভাগে অনেক অপশন আছে। ডাক বিভাগের সার্ভিসও সমগ্র দেশব্যাপী। এর মধ্যে একটা হলো ভিপি। এটা কন্ডিশন ডেলিভারির মতো। তবে ডাক বিভাগের উপর আজকাল কারো আস্থা নেই। তবে রেজিস্ট্রি ডাক, মেইল এক্সপ্রেস, ই পার্সেল ইত্যাদি নানা সার্ভিস ঢাক বিভাগে চালু হয়েছে। প্রথমত এগুলো জিপিও ছাড়া কোথাও পাওয়া যায়না। দ্বিতীয়ত নির্দিস্ট সসময়ে ডেলিভারী হয়না।

রেল সেবা: যারা নিজে বুকিং দিতে পারবেন। আবার গ্রাহক যদি নিজে স্টেশনে এসে রিসিভ করতে পারেন। তাহলে রেলের সেবাও নিতে পারেন।

চার্জ নির্ভর করছে আপনি কোন মাধ্যম ব্যবহার করছেন। সেটার উপর

 

5,203 total views, 3 views today

Comments

comments

You are not authorized to see this part
Please, insert a valid App IDotherwise your plugin won't work.

Your email address will not be published.