ফেসবুক মার্কেটিং – পর্ব ১

1188
maxresdefault

সর্ব প্রথমে মহান সৃষ্টিকর্তা কে অশেষ ধন্যবাদ দিয়ে লেখা শুরু করছি। ফেসবুক মার্কেটিং…… ডিজিটাল মার্কেটিং বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টিকারি একটি বাজারজাতকরণ ব্যবস্থা, যা খুবই সহজে এবং স্বল্প খরচে ব্যবসায় সফলতা এনে দিতে পারে। আজ থেকে আমরা ফেসবুক মার্কেটিং এর পুরো বিষয় টা ধাপে ধাপে জানবো।

 

আমরা এমন একটা দেশে বাস করি যেখানে নতুন যেকোনো পদক্ষেপে বাধাগ্রস্থ হতে হয় বিভিন্ন ভাবে। তার মধ্যে পেমেন্ট গেটওয়ে একটি বড় সমস্যা। আমরা ফেসবুক মার্কেটিং এ সবচেয়ে বাধাগ্রস্থ হই আমাদের পেমেন্ট গেটওয়ে নিয়ে। ফেসবুকে বাংলাদেশ থেকে পেমেন্ট করার জন্য ২ টি অপশন রয়েছে…

 

১. পেপাল                     ২. আন্তর্জাতিক ক্রেডিট/ভিসা/মাস্টার কার্ড

 

আপনারা সকলেই জানেন পেপাল বাংলাদেশে অনুমোদিত নয়। সেক্ষেত্রে আমাদের কে  ক্রেডিট/ভিসা/মাস্টার কার্ড দিয়েই পেমেন্ট করতে হবে। আর আপনি যদি ফ্রিলান্সার হন তবে সেকথা ভিন্ন। মাস্টার কার্ড সম্পর্কে “মহান ভাই” আগে বলেছেন তাই আমি আর এ বিসয়ে কিছু বললাম না। তবে আমার মতে আপনি যদি ফ্রিলান্সার না হন তবে আপনার জন্য নেটেলার মাস্টার কার্ড সব চেয়ে ভালো।

 

এবার আসি ফেসবুক মার্কেটিং এর প্রাথমিক বিষয়াবলী নিয়ে। আপনারা হয়তো জানেন ফেসবুক এ বিভিন্ন ভাবে পেইড মার্কেটিং করা যায়। ফেসবুক যে সব জিনিষ এর মার্কেটিং এর সুবিধা দেয় তা হলঃ

  • পেজ প্রমোট (যা দিয়ে আপনি আপনার পেজ এর লাইক বাড়াতে ও বিপুল পরিমান মানুষের কাছে আপনার পেজ কে তুলে ধরতে পারবেন)

 

  • পোস্ট প্রমোট (এটি দিয়ে আপনার পণ্যর পোস্ট আপনার ক্রেতাদের কাছে তুলে ধরতে পারবেন)
  • ওয়েবসাইট ভিজিট (আপনার ওয়েবসাইট এর ভিজিটর বাড়াতে পারবেন)
  • ভিডিও ভিউ (এটি দিয়ে আপনি আপনার পণ্য সংক্রান্ত ভিডিও তে ভিউ পেতে পারবেন)

 

 

ফেসবুক এর সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে মাত্র ১ ডলার দিয়েই মার্কেটিং করা যায়। আপনারা হয়তো সকলেই জানেন আপনার পেজ এর কোন পোস্ট এর অরগানিক ভিউ মাত্র ৩% অর্থাৎ আপনার পেজ এ যদি ১০০০ মানুষ লাইক দিয়ে থাকে তবে আপনার নতুন কোন পোস্ট মাত্র ৩০ জন এর নিউজ ফিড এ যাবে। তাই ফেসবুক পেইড মার্কেটিং দিন দিন অত্যন্ত জরুরী হয়ে পড়ছে।

 

ফেসবুক থেকে অরগানিক রিচ থেকে সেল পাওয়া তে আমি বিশ্বাসী কারণ এটি দীর্ঘ সময় ধরে ক্রেতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। অরগানিক রিচ দিয়ে কিভাবে সেল পাওয়া যায় সেটি সম্পর্কে আরেকদিন আলোচনা করবো।

 

আমি ফেসবুক পেইড মার্কেটিং কে ২ টি পর্যায়ে ভাগ করে প্রাথমিক ভাবে আলোচনা করবো। তারপর পেজ প্রমোট, পোস্ট  প্রমোট ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা করবো।

 

যে ২ টি বিসয়ে প্রাথমিক আলোচনা করবো, সেগুলো হলঃ

১. টার্গেটিং

২. কনটেন্ট

 

আজকে আর নয়। আশা করি ফেসবুক মার্কেটিং এর সম্পূর্ণ বিষয়াবলী খুব সহজেই আপনাদের কাছে তুলে ধরতে পারব। খুব শিগ্রই ২ পর্ব প্রকাশ করবো।

 

এতক্ষণ ধৈর্য সহকারে আমার লেখা পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

 

        ধন্যবাদ

 

প্রনয় লিয়ন ম্যান্ডেস

প্রতিষ্ঠাটা ও সিএমও

এফ এন এফ গিয়ার বিডি

 

ফোন ০১৬৮৫২৯২৯৩৪

ফেসবুকে আমিঃ প্রনয়

FnF Gear BD

Comments

comments

No Comments

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *