images

প্রথম পর্ব মিস করলে দেখে আসতে পারেন এখান থেকে ।

 

বেসিক এড টারমিনোলজিঃ

ক্লিকস – আপনার এডের উপর পরা মোট ক্লিকের সংখ্যা।

সি টি আর (click through rate)- ক্লিক থ্রো রেট । ক্লিক সংখ্যাকে একটি এড মোট যত বার দেখানো হয়েছে তার সংখ্যা দিয়ে ভাগ।

সি পি এমঃ(cost per mille)- ১০০০ ইম্প্রেশান পেতে গড় ব্যায়।

সি পি সি (cost per click ) – এভারেজ কষ্ট পার ক্লিকের সংখ্যা কে মোট ক্লিক সংখ্যা দিয়ে ভাগ।

ফ্রিকুয়েন্সিঃ প্রতি জন ব্যাক্তি আপনার এডের ইম্প্রেসান গড়ে যত বার করে পান ।

রিচ– ইউনিক লোকের সংখ্যা যারা আপনার এডটি দেখে থাকেন।

 

প্রতিটি উদ্দেশ্যের এডের ধরন

আপনার প্রথম ফেসবুক ক্যাম্পেইনটি তৈরি করার আগে ফেসবুকের বিভিন্ন এড সম্পর্কে ভাল ধারনা থাকা উচিত। সেটা আপনি নিজে না করে অন্যকে দিয়ে এড দেয়ালে ও দরকার। সাধারণত ফেসবুক সারা বছরই তার ব্যাবহারকারীদের প্রয়োজন অনুযায়ী তাদের এডের অফারিংগুলো পরিবর্তন করে থাকে। আপনার ক্যাম্পেইনের উদ্দ্যেশ্য যাই হউক তার ধরণ অনুযায়ী এড রয়েছে ।

 

আপনার ওয়েব সাইটের জন্য ট্রাফিক ও লিড

ফেসবুকের এডের অন্যতম উদ্দেশ্য আপনার সাইটের ভিজিটর পাঠানো। এড দেয়া হয় মুলত আপনার সাইটের ওভার অল রিচ বাড়াতে, অথবা পণ্য ক্রয় করতে কোন ডেডিকেটেড ল্যান্ডিং পেইজে ইউজার পাঠাতে অথবা কোন নিউজ লেটারে সাইন আপ করতে অথবা অন্য যেকোন লিড জেনারেশনে অংশ নিতে। নিচে ফেসবুকে বিভিন্ন এডের ধরণ নিয়ে আলোচনা করা হয়।

ডোমেইন এডঃ

1

সাপোর্টেড প্লেসমেন্টঃ ডান কলাম।

বিভিন্ন ধরনের ফেসবুক এডের মধ্যে এটি খুবই সাধারণ এড। এটি ডান কলামে প্রদর্শিত হয়। কোন মোবাইলে সাপোর্ট নেই। আপনি এর জন্য একটি টাইটেল, সংক্ষিপ্ত বর্ণনা, ও ইউআরএল পছন্দ করতে পারবেন। আজকের দিনে ক্লিক থ্রো রেট অনুযায়ী এটি তেমন পারফর্ম করে না যদিও এর খরচ তুলনামূলকভাবে কম।

পেইজ পোস্ট লিঙ্কঃ

2

সাপোর্টেড প্লেসমেন্টঃ ডান কলাম, নিউজ ফিড, মোবাইল।

এটাই ফেসবুক এডের মধ্যে সবচেয়ে কমন এড টাইপ। আপনার ওয়েব সাইটকে প্রমোট করতে এটি আদর্শ ।পেইজ পোস্ট লিঙ্ক এডস (নিউজ ফিড এডস) একটি বড় ইমেজকে ফিচার করে যা কিনা ভিজিটরদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে খুবই কার্যকর

এ ধরনের এড দারুন পারফর্ম করে এবং পাশাপাশি সুবিধা হিসেবে আপানার পেইজের জন্য লাইক ও জেনারেট করে। এনগেগমেন্ট বুস্টের জন্য যেটা করতে হবে তা হল আপনাকে কমেন্টের উত্তর দিতে হবে।

 

মাল্টি প্রডাক্টঃ

3

সাপোর্টেড প্লেসমেন্টঃ নিউজ ফিড মোবাইল

২০১৪ সালের জুনে ফেসবুক একটি নতুন ধরনের এড ফরম্যাট রিলিজ করে যার নাম মাল্টি প্রডাক্ট এড যেটা ই-কমার্স বিজ্জাপনের জন্য খুবই উপকারি কেননা এটি দিয়ে কোন স্টোরের একাধিক পণ্য প্রমোট করা যেতে পারে।

নতুন এই এড টাইপ শুধু মাত্র নিউজ ফিড, ডেক্সটপ ও মোবাইলের জন্য প্রযোজ্য। সাধারন পেইজ পোস্ট লিঙ্কের সাথে এর অনেক মিল রয়েছে এই এডে একটির পরিবর্তে তিনটি পণ্যের ইমেজ ও তাদের লিঙ্ক প্রদর্শিত হয়। এটি ই-কমার্স সাইট গুলোর জন্য একটি দারুন সুবিধা। একটি মাত্র এডে আপনি তিনটি আলাদা পণ্যের ইমেজ লিঙ্ক, এবং টাইটেল দেখাতে পারছেন। স্বাভাবিকভাবেই এ কারনে এতে করে ক্লিকের সম্ভাবনা ও বেড়ে যায় ।

 

আপনার পেইজের জন্য লাইক ও এনগেগমেন্টঃ

মোটামুটি সব ফেসবুক এডই ফেসবুক মার্কেটিংয়ের জন্য দারুন। আপনি সেগুলো ব্যবহার করতে পারেন আপনার পেইজের লাইক বাড়াতে বা পেইজে পোস্ট করা কনটেন্টের রিচ বাড়াতে।

সাম্প্রতিক ফেসবুক আপডেট গুলোর কারনে এখন আপনার পেইজে দেয়া পোস্টগুলো আপনার মাত্র ২-৬% বন্ধু বান্ধবের কাছে পৌছায় । তাই পোস্ট প্রমোট করাই একমাত্র উপায় যার মাধ্যমে আপানার সব পোস্ট আপনার ফ্যানদের কাছে পৌছানো নিশ্চিত করা যায়।

 

পেইজ লাইকঃ

4

সাপোর্টেড প্লেসমেন্টঃ ডান কলাম, নিউস ফিড, মোবাইল

এটি আপনার পেইজের লাইক বাড়ানোর এড। এটি সব প্লেসমেন্টেই ডিসপ্লে হয় এবং এতে ইউজাররা যেন এড দেখার সাথে সাথে লাইক দিতে পারেন তার জন্য কল টু একশন অন্তর্ভুক্ত থাকে। ভাল ফলাফলের জন্য অবশ্যি খুব ভাল ইমেজ দেয়া গুরুত্বপূর্ণ ।পেইজের লাইক বাড়াতে এড দিতে সময় মনে রাখতে হবে শুধু মাত্র সস্তা লাইক দিয়ে কিছু হবে না বরং সঠিক অডিয়েন্সের লাইক দরকার যাদের সত্যিকার অর্থেই আপনার পেইজের প্রতি আগ্রহ রয়েছে ।

 

পেইজ পোস্ট ফটোঃ

5

সাপোর্টেড প্লেসমেন্টঃ ডান কলাম নিউস ফিড, মোবাইল

এতি সাধারণত ব্যাবহার করা হয় পেইজের ফ্যানদের সাথে এনগেগ রাখতে। আপনার সুন্দর সুন্দর সব ইমেজ পোস্ট করার জন্য এই এডে রয়েছে সব চেয়ে বেশি স্পেস । সঠিক ইমেজটি বেছে নিতে পারলে আপনি কমেন্ট আর লাইকের বন্যায় ভেসে যাবেন । পোস্টের টেক্সট বর্ণনার জায়গায় আপনি লিঙ্ক যোগ করে দিতে পারেন তবে সেখান থেকে খুব বেশি ট্রাফিক আশা না করাই ভাল।

 

 

পেইজ পোস্ট ভিডিও

6

সাপোর্টেড প্লেসমেন্টঃ ডান কলাম, নিউজ ফিড, মোবাইল।

ভিডিও এড ফেসবুকে এখনো নতুন । তাই এর মাধ্যমে অনেক ট্রাফিক পাবার সুযোগ রয়েছে ।সমস্যা হল ভাল একটি ভিডিও পেতে হলে আপনাকে বেশ ভাল রকম সময় ও টাকা খবচ করতে হবে। বড় বড় কোম্পানিগুলো সাধারনত এ ধরনের এড বেশি দিয়ে থাকে, তবে ছোট কোম্পানি যাদের একটি স্মার্ট সোশ্যাল স্ট্রেটেজি রয়েছে তারা এই ফরম্যাট থেকে খুব ভাল ফলাফল পেতে পারে।

 

পেইজ পোস্ট টেক্সট

7

সাপোর্টেড প্লেসমেন্টঃ ডান কলাম, নিউস ফিড, মোবাইল

এই এড ফরম্যাট পেইজ এনগেগমেন্টের উপর ফোকাস করে । তবে পেইজ পোস্ট ইমেজে না দিয়ে এটি দেয়ার খুব কমই কারন থাকতে পারে কেননা এটি ছবি সহ এডের তুলনায় কম ফল দেয়।

 

 

মোবাইল বা ডেক্সটপের জন্য এপ ইন্সটলঃ

ফেসবুক তাদের মোবাইল এপ্লিকেশন চালু করার পর থেকে মোবাইল এডের মাঠে বড় খোলায়ারের ভুমিকায় অবতীর্ণ হয়। মোবাইল এড ইন্সটল এপ এডের কারনে এন্ড্রয়ডে ও আইওএস এই দুই প্লাটফর্মেই নতুন ব্যাবহারকারি বাড়ানোর দারুন সুযোগ এসেছে।

 

মোবাইল এপ

8

সাপোর্টেড প্লেসমেন্টঃ মোবাইল

এটি একটি খুব ভাল সুযোগ আপনার মোবাইল এপের ইন্সটল বাড়ানোর। এই এড শুধুমাত্র আপনার মোবাইলের নিউজ ফিডে দেখা যাবে। যখন একজন ইউজার “ইন্সটল’ নামের কল টু একসানে ক্লিক করবে তখনি একটি পপ আপ উইন্ডোতে এপ স্টোর আসবে। ফলে এর কনভারসন রেট অনেক।

এই ফরম্যাটের এড ব্যাবহার করার সময় আপনি অনেক অতিরিক্ত টার্গেটিং অপ্সান পাবেন যাদের মাধ্যমে আপনি আপনার অডিয়েন্সকে আরো অনেক বেশি ফাইন টিউন করে নিতে পারেন। যেমন আপনি এন্ড্রয়েড বা আইওএস ব্যাবহারকারি বেছে নিতে পারেন অথবা আপনি যারা শুধু মাত্র মোবাইল ডিভাইস বা ট্যাবলেট বা যারা ওয়াই ফাই ব্যাবহার করে এমন ভিজিটর বেছে নিতে পারেন।

 

 

ডেক্সটপ এপ

9

সাপোর্টেড প্লেসমেন্টঃ ডান কলাম , নিউজ ফিড

এই এড ইউনিটটি তুলনামূলক ভাবে নতুন । এটি ভিজিটরদেরকে আপনার ফেসবুক এপের দিকে নিয়ে যায়। ফেসবুক এপ মোবাইলে সাপোর্ট করে না বলে আপনি এই এডকে আপনি টার্গেট করতে পারেন ডেক্সটপ নিউজ ফিডে বা ডান কলামে। আপনার

স্টোর বা ইভেণ্টের জন্য ভিজিটর

আপনার ফিজিকাল স্টোর বা ইভেন্টের জন্য ভিজিটর নিয়ে আসার দুটো উপায় সম্পর্কে আমরা এখানে জানবো।

 

ইভেন্ট

10

সাপোর্টেড প্লেসমেন্টঃ ডান কলাম, নিউজ ফিড, মোবাইল।

অনেক বেশি ভিজিটর আকর্ষণের জন্য ইভেন্ট অরগানাইজারদের কাছে ফেসবুক ইভেন্ট হচ্ছ্বে একটি দারুন উপায়। আপনি যদি আপনার ইভেন্টের রিচকে বুস্ট করতে চান তবে সঠিক টার্গেট অপ্সান ব্যাবহার করে এই এডটি ব্যাবহার করতে পারেন।

আপনার ইভন্টের আকার ও প্রাসঙ্গিকতা অনুসারে ইভেন্টে অংশ নেয়া লোকদের বসবাসের এলাকা ও শহর ঠিক করার মাধ্যমে আপনি আপনার এডের রিচে ভৌগলিক রিচে সীমাবদ্ধতা আনতে পারেন।

অফার

11

সাপোর্টেড প্লেসমেন্ট; ডান কলাম, নিউজ ফিড, মোবাইল।

ইট কাঠের নির্মিত ষ্টোরের মালিক যারা তাদের স্টোরে আরো অনেক লোকদের আকর্ষিত করতে চান তাদের জন্য এই এডটি উপযুক্ত ।কোন একটি অফার তৈরি করতে আপনার পেইজে নুন্যতম ৫০ টি লাইক থাকতে হবে।

 

আমরা উপরে যেমনটা দেখলাম যে ,ফেসবুকের এডের টাইপের ধরণ অনেক বিস্তৃত যেগুলো আপনার যেকোন ধরনের প্রয়োজন মিটাতে সক্ষম। আমার পরামর্শ থাকবে যখনই সম্ভব ভিন্ন ভিন্ন এড ফরম্যাট ব্যাবহার করে আপনার এডটি দিয়ে দেখুন এতে করে আপনার জন্য কোন ফরম্যাটটি সবচেয়ে ভাল ফল এনে দিচ্ছে এবং কম খরচে কোনটি সবচেয়ে ভাল ফল এনে দিচ্ছে তা জানতে পারবেন।

বরাবরের মতই আপনাদের সাড়া পেলে ৩য় পর্বে আমরা আমাদের প্রথম ফেসবুক এড কিভাবে করবো সেটা জানবো ।

Personal Profile: আনোয়ার হোসেন
Business Page : econtentbd
Website: www.econtentbd.com
Skype ID : anower009
E-Mail ID: hossain.anower009@gmail.com

2,445 total views, 2 views today

Comments

comments