Jahangir Alam Shovon

গোলটেবিল বৈঠকে আলোচ্য পরামর্শসমূহ
জাহাঙ্গীর আলম শোভন

ই কম ভয়েস রিপোর্ট : ২৭ মে, ২০১৬ বিকাল ৪টায় ই কমার্স বিষয়ক ই কমার্সের সমস্যা ও সম্ভাবনা শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠক রাজধানীর বনানীতে অনুষ্ঠিত হয়। অনলাইন পত্রিকা ই কম ভয়েসের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ই কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর প্রেসিডেন্ট জনাব রাজিব আহমেদ। দিনরাত্রি ডট কম নামে একটি কোম্পানী এই বৈঠকটি স্পন্সর করেন এবং অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ই কম ভয়েস সম্পাদক ও ই ক্যাবের ডাইরেক্টর জনাব আফজাল হোসেন।
দিনরাত্রি ডট কম এর সিইও সাহাব উদ্দীন শিপন, কাস্টমার কেয়ার স্পেশালিস্ট অর্নব মোস্তফা, খানলিস্ট এর সিইও সাইফুল্লাহ খান, জেটাবাইটেরে সিইও ওমর শরীফ ও ই কমার্স কনটেন্ট রাইটার জাহাঙ্গীর আলম শোভনসহ অনেকে ই কমার্সের সমস্যা ও সম্ভাবনার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন।
ই ক্যাব প্রেসিডেন্ড রাজিব আহমেদ বলেন, আমরা অযৌক্তিকভাবে কাউকে উৎসাহিত করছিনা। আমরা সব সময় সমস্যার কথাও বলি, ই ক্যাব ব্যবসায় সম্পর্কে সঠিক শিক্ষা ও ধারণা নিয়ে ব্যবসায় শুরু করার পরামর্শ দিয়ে থাকে, এবং ওয়ার্কশপ আড্ডা ব্লগ ও ট্রেনিং এর মাধ্যমে উদ্যোক্তাদের দক্ষতাবৃদ্ধিতে কাজ করে যাচ্ছে।
দিনরাত্রি ডট কমের সিইও সাহাব উদ্দীন শিপন বলেন, উদ্যোক্তার পাশাপাশি কাস্টমার তৈরী করতে হবে। কাস্টমার বা ক্রেতার সংখ্যা ও বিক্রির পরিমাণ না বাড়লে শুধু উদ্যোক্তা তৈরী হলে একপর্যায়ে উদ্যোক্তাদের একটা অংশ ঝরে পড়বে।
অর্নব মোস্তফা বলেন, ফাস্ট টাইম ইমপ্রেশন খুব গুরুত্বপূর্ণ, আপনার কোম্পানীর প্রথমে দিকের প্রেজেন্টেশান কেমন হবে এটার উপর নির্ভর করবে পরবর্তী কাস্টমার এর কাছে আপনার সেরকমইমেজ তৈরী করবে। এমনি করে ফোন, চ্যাট ও কল এর ব্যাপারে একই কথা প্রযোজ্য।
অর্নব মোস্তফা আরো বলেন বাজার বৃদ্ধি করার জন্য গতানুগতিকভাবে প্রমোশন না করে ইন্টেলিজেন্স ওয়েতে প্রমোশন করতে হবে। নতুন একটা শপ যদি মূল্যছাড় দেয় তাহলে সেটা গুরুত্ববহন করে না। পরিচিতি আছে এবং নাম সম্পর্কে ধারণা আছে এরকম পন্যের উপর ছাড় দেয়া হলে কাস্টমার আগ্রহী হবে।
জেটা বাইটের ওমর শরীফ বলেন, সঠিক পরিকল্পনা করে ধৈর্যসহ বাজারে টিকে থাকতে হবে। সব সময় মনে রাখতে হবে আমার কতোজন কাস্টমার তৈরী হলো কতটাকা বিক্রি হলো তা নয়। তিনি আরো বলেন কমিউনিকেশন এর মাধ্যমে কাস্টমারের উপর ইমপেক্ট তৈরী করতে হবে। এবং অনলাইন শপ এর ক্ষেত্রে ডেলিভারীটা গুরুত্ব অনেক বেশী।
আফজাল হোসেন বলেন, বিভিন্ন সেক্টরে ব্রান্ড পোডাক্ট রয়েছে আমরা অনেক সময় সেসব পন্য বা কোম্পানীতে বিশ্বাসের সহিত পন্য ক্রয় করে থাকি তাই আমাদের প্রয়োজন ই কমার্স সেক্টরে ব্রান্ডিং করা।
ফয়সাল আহমেদ আদনান বলেন, বাজার বৃদ্ধি এবং ব্রান্ডিং এর জন্য অনলাইন এর পাশাপাশি অফলাইনেও ব্রান্ডিং করা উচিৎ।
জাহা্ঙ্গীর আলম শোভন বলেন, ইউনিক আইডিয়া ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, প্রোডাক্টস সোসিং থেকে শুরু করে পন্য প্যাকিং, ডেলিভারী প্রতিটি ক্ষেত্রে আপনার ভিন্ন একটা মেসেজ দেয়ার সুযোগ থাকে, সে সুযোগ গুলো গ্রহণ করে আপনি অবশ্যই আপনার ভিন্নতা সম্পর্কে মেসেজ দিতে পারেন।
খানলিস্ট এর সাইফুল্লাহ খান বলেন, কাস্টমার বাড়ানো এবং পুরো ই কমার্স ব্যবসায়ের উন্নয়নের জন্য ই ক্যাবের পাশাপাশি উদ্যোক্তাদেরও এগিয়ে আসা উচিত। প্রতিটি লেনদেন ব্যবসায়ের বিভিন্ন পর্যায়ে একথা মাথায় রাখা উচিত যে শুধু বিক্রি বড়ো কথা নয়, কাস্টমার তৈরী এবং কাস্টমার ধরে রাখার বিষয়টা গুরুত্বপূর্ণ।
সুপর্না বণিক বলেন, কিছু কিছু বিজনেস সেক্টরে ভ্যারাইটি একটু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিশেষ করে শাড়ী, জুয়েলারী এবং জুতো এসব ক্ষেত্রে কাস্টমার অনকেসময় নতুন মডেল ও ভিন্ন কিছু খোঁজ করে। সেক্ষেত্রে পোডাক্টে ভ্যারাইটি থাকলে বিক্রিটা বাড়ার সুযোগ থাকে।
টুনিবিবি ডট কম এর মুনতাসির আজাদ বলেন, আমরা একে অপরকে রেফার করতে পারি। যেমন আমরা জুয়েলারী প্রোডাক্টস সেল করি কিন্তু কেউ যদি আমার কাছে থ্রিপিস সম্পর্কে জানতে চায় তখন আমরা ভালো একটা সাইট রেফার করি। তখন আমাদের একটা ভালো ইমেজ তৈরী হয়।
নুসরাটেক এর নেয়ামত উল্যাহ মহান বলেন, সব সময় আমরা সেলস এর কথা ভাবি, কিন্তু আমরা পরোক্ষভাবেও কাস্টমার জেনারেট করতে পারি, যেমন আমরা যদি আমার পেইজে পরামর্শমূলক ভাবে বা তথ্যভিত্তিক বিভিন্ন বিষয় শেয়ার করি তখন কাস্টমার সে বিষয়ে আগ্রহী হয় এবং কিছু বিক্রির সম্ভাবনা থাকে।
সাজ্জাদুর রহমান সজিব বলেন, ব্রান্ডিং এর জন্য কোয়ালিটি এবং সার্ভিস গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

রুহুল কুদ্দুছ ছোটন বলেন, আমরা অনেকে ভালো ছবির প্রতি নজর দেই না, আবার অনেকে অন্যের ছবি কপি পেস্ট করেন ফলে নিজের ভাবমূর্তি যেমন নষ্ট হয় তেমনি পুরো মার্কেটের উপর খারাপ প্রভাব পড়ে, আমরা যদি এই বিষয়ে সচেতন হই তাহলে অনেকাংশে সমস্যার সমাধান করে এগিয়ে যেতে পারবো।
কয়েকঘন্টার আলোচনায় মুল বিষয়গুলো তুলে ধরা হলো।

508 total views, 4 views today

Comments

comments