ভুল ধারণা

একজন উদ্যোক্তা হিসেবে যে ধারণাগুলো বদলে ফেলা প্রয়োজন

জাহাঙ্গীর আলম শোভন

একজন উদ্যোক্তা হলেন নেতা, একজন পথপ্রদর্শক এবং একসজন সাহসী যোদ্ধা। তিনি সফল হলেও একজন যোদ্ধা তেমনি বিফল হলেও একজন যোদ্ধা। একজন উদ্যোক্তার সৎ সাহসই তাকে সফল হতে সাহায্য করে। তারপরও দেশ ও সময়ের উপর ভিত্তি করে ভিন্ন পরিস্থিতিতে ভিন্ন ভিন্ন রকমের সমস্যা থেকে থাকে। যেমন আমাদের দেশে সমস্যাগুলো একটু আলাদা প্রথমত একজন উদ্যোক্তা কারো কাছে মানসিক এবং আর্থিক সাহায্য পায়না দ্বিতীয়ত এখানে আর্থিক নিরাপত্তা দূর্বল হওয়ার কারণে ঝুঁকি থাকে একটু বেশী। তার উপর বাস্তব জ্ঞানের অভাবে অনেক যোগ্যতা থাকা সত্বেও শুরুর দিকে উদ্যোক্তারা হোঁচট খান। আর যে সমস্যাটা আমাদের বর্তমান সমাজকে কুরে কুরে খাচ্ছে তা হচ্ছে সমাজে প্রচলিত নানা মুখরোচক স্লোগান, ভুল কথাবার্তা আর বিভিন্ন রকমের রিউমার। এসব বিষয় উদ্যোক্তাকে সফল হওয়ার আগেই সমস্যায় ফেলে দেয়। আসুন আজ সেসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করা যাক।

রাতারাতি সফল হওয়ার ধারণা

আমরা অনেকে কোনো একটা কাজ শুরু করি আর মনে করি আমরা রাতারাতি সফল হয়ে যাবো। ব্যর্থতার কথা মাথায় আনি না। আসলে সফলতা হলো একটা প্রক্রিয়া যার প্রথমদিকে থাকে ভুল ও ব্যর্থতা তারপর কোনো পর্যায়ে সফলতা আসে। আর সফলতা কোনো পাহাড় চূড়া নয় যে এটা সব সময় এক রকম থাকবে।  সফলতা একটা চলমান প্রক্রিয়া  এটা ধরে রাখাটা জরুরী। আর সেজন্য আগেই প্রস্তুতি থাকতে হবে। সলফ হওয়ার কোনো শর্টকাট রাস্তা নেই এজন্য সৎভাবে পরিশ্রম করে এগুতে হবে।

 ঘরে বসে কোটিপতি হওয়ার ধারণা

কিছু কিছু প্রচারণা রয়েছে যে ঘরে বসে লাখ টানা কামানো যায় সহজেই। ব্যাপারটা আসলে যেভাবে বলা হয় সেরকম নয়। আপনি ঘরে বসে কাজ করবেন আর লাখ লাখ টাকা আপনার কাছে চলে আসবে এমনতো কোনো মেশিন নেই। কিছু মানুষ নিজের ঘরে বসে কাজ করেন তারা কাজ জানেন আর তাদের কাজের ক্রেতা ঠিক করেছেন  বলেই তারা হয়তো ঘরে বসে কাজ করে রোজগার করছেন। যারা অফিসে বসে কাজ করেন সেটাওতো ঘর। সেখানেওতো কাজ করে মানুষ টাকা কামায়। আসল কথা কাজ বা পন্য তৈরী এবং তা ভোক্তার কাছে পৌছে দিয়ে টাকা গ্রহণ এটা যদি আপনি ঘরে বসে করতে পারেন তাহলে আপনার টাকা আসবে।  এখন নাপিতের ঘর যদি বাজারে তার দোকান সেও ঘরে বসে কামাচ্ছে। প্রকুত পক্ষে যারা ঘরে বসে টাকা কামায় যেমিন ফ্রিল্যান্সাররা তারা কিন্তু আগে কাজটা শিখেছে। আর কাজের ক্রেতা তৈরী করছে তবেইনা সেটা সম্ভব।

কিন্তু ঘরে বসে ই কমার্স ব্যবসায় করে লাখোপতি হওয়ার স্বপ্ন দেখা ঠিক নয়। কারণ কোনো ব্যবসায়ই আক্ষরিক অর্থে ঘরে বসে করা যায়না। দেখুন ব্যবসায় করার জন্য একদিকে আপনাকে পন্য ও সেবার যোগান বা সোর্সং করতে হবে আবার প্রমোশন চালিয়ে বিক্রি করতে হবে এবং ভোক্তার কাছে পৌঁছে দিতে হবে। এখন এই কাজ আপনার দ্বারা যদি কোনোভাবে ঘরে বসে করা যায় তাহলে ঠিকই আছে। আর যদি এসব শেখার এবং বোঝার জন্যও ঘর থেকে বের হতে হয়ে তাহলে মনে হয় ধারণাটা বদলাতে হবে।

বিক্রি হলেই হলো

ব্যবসায় লাভ করার জন্য শেষপর্যন্ত পন্যটি বিক্রি করতে হবে এতে কোনো সন্দেহ নেই। বিক্রিই শেষ কথা লাভই আসল কথা। কিন্তু মনে রাখতে হবে বিক্রিই প্রথমকথা নয় আর লাভই একমাত্র উদ্দেশ্য নয়। একজন ব্যবসায়ী ব্যবসায়িক বাজারে প্রবেশ করে স্বল্পসময়ের জন্য নয় অবশ্যই দীর্ঘদিনের জন্য তাই দীর্ঘমেয়াদী কিছু একটা হওয়ার প্রস্তুতিও সময়সাপেক্ষ হবে এটাইতো স্বাভাবিক। এজন্য বিক্রি বৃদ্ধি বা লাভ আসার জন্য একটা সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে প্রথমদিনে থেকেই লাভ কামনা করার কোনো কারণ নেই। তবে দিনের পর দিন লাভ না করারও কোনো মানে হয়না। তাই লাভ লোকসান বা বিনিয়োগ সব প্লানের মাধ্যমে হবে শুরু দিকে লাভের কথা চিন্তা না করে ব্রান্ডিং ও নেটওয়ার্ক তৈরীর কথা ভাবতে হবে।

ব্যবসায়ে শেখার কিছু নেই, পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত নিতে পারলেই হলো

এ ধরনের ধারণা ঠিক নয়। ব্যবসায়, বাজার এবং ক্রেতারমণ এই তিনটি বিষয় সাথে পন্য ও প্রমোশন এই বিষয়গুলোর উপর সঠিক ধারণা থাকা চাই। এজন্য শুধু প্রাথমিক ধারণাতে চলেনা। ব্যবসায় সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন এর প্রয়োজন হয়। প্রয়োজন হয়  শিক্ষা প্রশিক্ষণ ও অভিজ্ঞতার। এগুলো যার ভালো থাকবে তিনিই পরিস্থিতি অনুযায়ী সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। যার ধারনা যত কম তিনি তত ভুল করবেন বটোই স্বাভাবিক। তাই কোনো বিষয় ভালো না জেনে শুরু করা এবং একক সিদ্ধান্ত নেয়া ঠিক নয়।

আবেগে নয় বিবেচনা শক্তিকে কাজে লাগান

আমরা আমাদের ব্যক্তিগত জীবনে অনেক আবেগতাড়িত ব্যাপার থকে সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকি কিন্তু ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে এর কোনো ভিত্তি নেই। বাজারের নানা তথ্য বিশ্লেষন করে সিদ্ধান্ত নিতে হয় যাতে ভুল সিদ্ভান্তের কারণে কোনো ক্ষতির আশংকা না তাকে। তাই তথ্য ও বসা্তবতা নির্ভর প্রকৃত শক্তিকে কাজে লাগতে হবে। এবং সে অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নিতে হবে এর কোনো বিকল্প নেই।

আসুন একজন উদ্যোক্তার পাশে দাড়ান। তাদেরকে সহযোগিতা করুন। নিজেও ভালোভাবে জেনে নিন। পারষ্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিকে কাজ করুন।

সূত্র- বই: নিজেকে গড়ে তুলতে, লেখক: জাহাঙ্গীর আলম শোভন, প্রকাশক- সাহিত্যদেশ।

778 total views, 17 views today

Comments

comments