মানবসেবা

মানবসেবা ডট কম

ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছে ই-ক্যাবের manobsheba.com উদ্যোগের সাথে যুক্ত হয়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতে। করোনা পরিস্থিতিতে গরিব ও স্বল্প আয়ের মানুষদের দৈনিন্দিন রুটি রুজি প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। এই স্বল্প আয়ের মানুষগুলো সবসময় বিভিন্ন দায়িত্বপালনের মাধ্যমে আমাদের প্রতিদিনের জীবনের বিভিন্ন সেবা ও পণ্যসামগ্রী সরবরাহে নিয়োজিত থাকে। দৈনিন্দিন খাবার, শিশুদের খাদ্য এবং বয়স্ক ও অসুস্থ্যদের ঔষধসহ নানাবিধ জরুরী নিত্যপণ্যের সংকটে তাদের জন্য বেঁচে থাকা কঠিন হয়ে পড়েছে। এই অবস্থায় মানবসেবার সাথে সকলের সম্পৃক্ততা প্রয়োজন।  মানবসেবার সাথে সম্পৃক্ত সকলে যেন ফেসবুকে পোস্ট দিতে পারেন। সেজন্য কিছু কনটেন্ট তৈরী করে দেয়া হলো। –

ফোকাস পয়েন্ট ৪টি

ফোকাস পয়েন্টগুলো লিখে দিলাম। আর কয়েকটি নমূনা মেসেজও দিলাম। আশা করি বুঝতে সহজ হবে।

 

১. আমাদের দেশে এখনো লাখো মানুষ দুরিদ্র সীমার নিচে বাস করে যারা দিন আনে দিন খায়। তাদের নিত্য দিনের খাবারের সংকট। আমাদেরকে তাদের পাশে দাঁড়াতে হবে। আমাদের সকলের দায়িত্ব রয়েছে। সমাজের অসহায় বিপদগ্রস্থ মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর।

২. ঘরে বন্ধী কারণে আমরা যেহেতু স্বশরীরে গিয়ে সাহায্য দিতে পারবনা। তাই ঘরে বসে কার্ড, ব্যাংক বা বিকাশ ও নগদের মাধ্যমে আমরা ই-ক্যাবের মানবসেবা কার্যক্রমে অংশ নিয়ে তাদের হাতে আমাদের অনুদান তুলে দিতে পারি। তারাই পৌঁছে দেবে অভাবী ও অসহায় মানুষদের ঘরে ঘরে।

৩. আসুন, আমরা আমাদের দায়িত্ব পালন করি। পরষ্পর পরষ্পরের পাশে দাঁড়াই। আমাদের সম্মিলিত প্রয়াসের মাধ্যমে আমরা করোনাকে হারাতে পারব। জয় হবে মানবতার।

৪. অন্তত একটি পরিবারের দায়িত্ব নিন। চারজনের একটি পরিবারের এক মাসের খাবারের বাবত চার হাজার টাকার খাদ্য উপাদান দেয়া হবে।

 

নমূনা পোস্ট

 

ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছে ই-ক্যাবের manobsheba.com উদ্যোগের সাথে যুক্ত হয়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতে। দেশে করোনা পরিস্থিতি দিন দিন জটিলতার দিকে মোড় নিচ্ছে। অন্যদিকে গরিব ও স্বল্প আয়ের মানুষদের দৈনিন্দিন রুটি রুজি বন্ধ হয়েছে। তাদের দৈনিন্দিন খাবার, শিশুদের খাদ্য এবং বয়স্ক ও অসুস্থ্যদের ঔষধসহ নানাবিধ জরুরী নিত্যণ্যের সংকটে বেঁচে থাকা কঠিন হয়ে পড়েছে। আমাদের বসতবাড়ী আলাদা হলেও আমরা একই সমাজের অংশ। এই মানুষগুলো প্রতিনিয়ত বিভিন্ন দায়িত্বপালনের মাধ্যমে আমাদের প্রতিদিনের জীবনের বিভিন্ন সেবা ও পণ্যসামগ্রী সরবরাহে নিয়োজিত থাকেন। তারা আমাদের কাছের মানুষ, আমাদেরই আত্মীয়। আজ গোটা মানবজাতি একসাথে আক্রান্ত হয়েছি। তাই একসাথে লড়াই করে বাঁচতে হবে। আসুন ই-ক্যাবের সাথে একাত্ম হয়ে মানবসেবায় যোগ দেই।  অনুদান দিন manobsheba.com এ। পৌঁছে যাবে অভাবীর ঘরে।

 

দেশ ও জাতির এই সংকটমুহূর্তে আমরা পরষ্পরের সাথে থেকে একযোগে দূর্যোগ মোকাবেলা করব। আমাদের আশপাশে যেসব অভাবী মানুষ রয়েছে তাদের পাশে দাঁড়াব।  এই প্রত্যয়ে মানবসেবা ডট কম নামে একটি প্লাটফরম তৈরী করেছে ই-ক্যাব। যাতে অসহায় ও বিপদগ্রস্থ মানুষদের জন্য হাতে হাত রেখে একজোট হয়ে কাজ করা যায়। মানবসেবায় যুক্ত হোন, আপনার দেয়া অনুদান পৌঁছে যাবে অভাগ্রস্থ মানুষের হাতে। আমরা সবাই বাংলাদেশের মানুষ আমরা বাঁচলে একসাথেই বাঁচবো। ভাল থাকলে একসাথে থাকব। সকলে মিলে ভাল থাকার জন্য পরষ্পরের পাশে দাঁড়ানোর এটাই সময়।

অন্তত একটি পরিবারের দায়িত্ব নিন। একটি পরিবারের সেহরী ‍ও ইফতারের জন্য আপনার দেয়া মাত্র চার হাজার টাকা অনুদান তাদের দুইবেলো খেয়ে বেঁচে থাকার উপকরণ হবে।

আমরা যারা মুক্তিযুদ্ধের পরবর্তী প্রজন্ম। আমরা যারা মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি কিংবা মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণের সুযোগ পাইনি। আমাদের আজ সুযোগ এসেছে দেশের জন্য কাজ করার। আমাদের অস্ত্রের সামনে দাঁড়াতে হবে না। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের মতো গায়ের তাজা রক্তও দিতে হবে না।

শুধু ঘরে বসে থাকতে হবে ক’টা দিন। নিজেকে নিরাপদ রাখতে হবে। আর সামর্থ অনুযায়ী মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। আসুন এই টুকু দায়িত্ব অন্তত পালন করি।

না আপনাকে কারো বাসায় গিয়ে সাহায্য দিয়ে আসতে হবে না। কেউ আপনার বাসায়ও আসবেনা। আপনার সাহায্য আপনি মানবসেবা ডট কম এ দিয়ে দিন। ই-ক্যাবের মানবসেবা ডট কম নিজস্ব স্বেচ্চাসেবকদের মাধ্যমে সাহায্য পৌঁছে দেবে সেসব মানুষের কাছে, যারা আমার আপনার সাহায্যের অপেক্ষায় রয়েছে।

 

৪.

এখনো দেশে অন্তত এক লাখ মানুষ রয়েছেনে যাদের ঘরে আগামী কালকের জন্য কোনো খাবার মজুদ নেই। তারা আমার আপনার প্রতিবেশী। আমাদেরই আপনজন। স্বল্পআয়ের কিংবা যাদের আমরা দরিদ্র বলি সেসব মানুষেরা প্রতিদিন আমাদের জন্য জমিতে কারখানায় নানা কাজে জড়িত থাকেন। তারা নানা সেবা দিয়ে আমাদের জীবনের অংশ হয়ে আছেন।

তারা যদি ভাল না থাকে। আমাদের ভাল থাকারও কোনো সুযোগ নেই। তাই নিজেদের স্বার্থে এইসব মানুষদের পাশে দাঁড়ান। ই-ক্যাবের মানবসেবা কার্যক্রমের মাধ্যমে তাদের কাছে পৌঁছে দিন আপনার উপহার। আমরা এদেশের মানুষ আমরা সবাই আজ বিপদগ্রস্থ। এই বিপদের দিনে একে অপরের পাশে থেকে একসাথে বাঁচবো ।

এই হোক আমাদের প্রত্যয়। আপনি আপনার অনুদান বা সহযোগিতা মানবসেবায় দিন। আপনার উপহার পৌঁছে যাবে সেসব অভাবী মানুষদের ঘরে।

অন্তত একটি পরিবারের দায়িত্ব নিন। এই রমযানে পরিবার প্রতি চার হাজার টাকা অনুদানে মানবসেবা ডট কম তাদের জন্য একমাসের খাদ্যসহায়তা পৌঁছে দেবে তাদের ঘরে ঘরে।

 

 

৫.

যারা বলেন, ১৯৭১ সালে যদি তারা থাকতেন তাহলে তারা দেশের জন্য যুদ্ধে যেতেন। হ্যাঁ করোনা তাদেরকে যুদ্ধের সুযোগ করে দিয়েছে। যে যুদ্ধ ঘরে বসেও করা যায়। আপনি ঘরে বসে নিজে নিরাপদ থাকুন। আর আপনার প্রতিবেশী কিংবা দেশের স্বল্প আয়ের মানুষদের নিরাপদ রাখতে এবং তাদের বেঁচে থাকতে সহযোগিতা করতে তাদের পাশে দাঁড়ান। এটাই আমাদের যুদ্ধ।

ই-ক্যাবের মানবসেবা ডট কম এর মাধ্যমে আপনি এই যুদ্ধে অংশগ্রহণ করতে পারেন। এখনি আপনার অনুদান দিয়ে এই যুদ্ধে অংশগ্রহণ করুন। আপনার দেয়া অনুদান মানুষের ঘরে পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব নিয়েছে ই-ক্যাবের মানবসেবা টিম।

মানবসেবার মাধ্যমে পরিবারপ্রতি মাত্র চার হাজার টাকা অনুদান দিয়ে একটি পরিবারকে একমাস টিকে থাকার জন্য হাত বাড়িয়ে দিন। চার হাজার টাকায় একটি পরিবারের ইফতার ও সেহরী উপকরণ পৌঁছে দেবে মানবসেবা ডট কম।

 

৬.

আমাদের জীবনে বেঁচে থাকার জন্য প্রতিদিন আমরা খন্ড খন্ড লড়াইয়ে যুক্ত হই। কিন্তু করোনা নামক মহামারী আমাদেরকে সবাইকে আজ এক অভিন্ন লড়াইতে এক কাতারে এনে দিল। জাতি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে আজ আমরা সকলে আক্রান্ত অথবা আক্রান্ত হওয়ার আশংকায় ঘরে বসে বন্দী জীবন কাটাচ্ছি।

কিন্তু শুধু ঘরে বসে থাকার মধ্যেই আমাদের কাজ বা দায়িত্ব শেষ হতে পারে না। সারাবছর আমাদের নানারকম সেবা দিয়ে যান স্বল্পআয়োর মানুষগুলো। রিকসা ড্রাইভার থেকে শুরু করে রাস্তারপাশের হকার। সকলে আমাদের জীবন ও সমাজের অংশ। তাই তাদেরকে বাদ দিয়ে আমরা একা একা ভাল থাকতে পারিনা।

আপনি ঘরে বসেই যেন তাদের জন্য কিছু করতে পারেন সেজন্য এগিয়ে এসেছে ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ। ই-ক্যাবের মানবসেবা ডট কম এ আপনার সহযোগিতা দিন। এই সহযোগিতা পৌঁছে যাবে তাদের কাছে যারা আপনার আমার সহযোগিতার অপেক্ষায় রয়েছে।

 

৭.

কাজ করে যারা খান তারাইতো সোনার মানুষ। আপনার আমার নানা প্রয়োজন যারা প্রতিনিয়ত মেটাতেন। কভিড নাইনটিন এর থাবায় তারা আজ ঘরবন্ধি। আপনি আমিও ঘরবন্ধি। কিন্তু আমাদের হয়তো ২/৪ মাস চলার ক্ষমতা আছে। আর তাদেরকেতো আমরা খুব অল্প মূল্যে সেবা নিয়েছি। তাই তাদের সে ক্ষমতা নেই।

আজ আমাদের আত্মীয় আপনজনের মতোই তারা। তাদের কাছে আমাদের সহযোগিতা সমন্বয় করে পৌঁছে দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে ই-ক্যাবের মানবসেবা কার্যক্রম। তাই আসুন। আমরা আমাদের সক্ষমতা নিয়ে তাদের পাশে দাঁড়াই। তাদের ন্যুনতম খাবারের চাহিদা পূরণ করে তাদের বাঁচিয়ে রাখি। আর এভাবে আমরা একে অপরের পাশে দাঁড়াব। আমরা হারবনা। আমাদের কাছেই হারবে করো না।

একটি পরিবারের জন্য একমাসে মাত্র চারহাজার টাকা দিলেই মানবসেবা ডট কম চারজনের একটিপরিবারের একমাসের খাবার পৌঁছে দেবে তাদের ঘরে ঘরে।

 

 

৮.

এখনো লাখো পরিবারের আগামীকাল চুলায় হাড়ি চড়বে কিনা সেই নিশ্চয়তা নেই। কারো ঘরে শিশু সন্তান রয়েছে। কারো রয়েছে বয়স্ক মা-বাবা, কারো ঘরে আছে হয়তো গর্ভবতী মা-বোন।

আমরা সবাই এদেশের মানুষ। ১৯৭১ সালে সর্বস্তরের মানুষ একসাথে ঝাঁপিয়ে পড়েছি বলেই ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে আমরা স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনেছি। এবারের যুদ্ধ আরো সহজ ঘরে বসেই যুদ্ধ করা।

আপনার যুদ্ধের জন্য প্লাটফর্ম তৈরী করে দিয়েছে ই-ক্যাব। ই-ক্যাবের মানবসেবা কার্যক্রমের মাধ্যমে দরিদ্র মানুষের বাসায় খাবার পৌঁছে দেয়া হবে। এজন্য আমি তাদের পাশে দাড়িয়েছি। আপনিও দাঁড়ান। আপনার অনুদান দিন মানবসেবা ডট কম এ।

চারজনের একটি পরিবারের জন্য সপ্তাহে এক হাজার টাকা আর মাসে চার হাজার টাকা দিয়ে তাদের পাশে থাকুন। আপনার টাকায় সে পরিবারটির জন্য খাবার পৌঁছে দেবে ই-ক্যাবের মানসেবা টিম। আপনার দায়িত্ব শুধু অনুদান দিয়ে পাশে থাকা।

 

৯.

আপনার চোখে কি ভাসে একজন দিনমুজুরের করূণ ক্ষুধার্ত চাহনী, একজন রিকসা চালকের শিশুসন্তানের নিষ্পাপ মুখ, একজন চাষীর না খাওয়া মুখের হাসি। একবার ভাবতে পারেন ভ্যান চালকের বৃদ্ধ মায়ের হতাশাগ্রস্থ মুখ, একজন বেকার কারখানা শ্রমিকের ছোট-ভাইবোনদের বিষাদগ্রস্থ প্রতীক্ষা। সবই আমাদের চারপাশে রয়েছে। আর তার মাঝেই আমরা এসব মানুষের পাশে দাঁড়ানোর এখনি সুযোগ। আমরা কে কত দেশপ্রেমিক কে কত মানবতাবাদী তা এখনি বোঝা যাবে। ই-ক্যাব মানবসেবা উদ্যোগের মাধ্যমে এইসব মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়ে তুলতে চায়। তবে এজন্য প্রয়োজন আপনার আমার সহযোগিতা। আমি এতে অনুদান দিয়েছি। আপনিও দিন। মানবসেবা ডট কম ভিজিট করে আজই অংশ নিন মানবতার সেবায়।

অন্তত একটি পরিবারের দায়িত্ব নিন। আমরা একটি করে পরিবারের দায়িত্ব নিলে কেউ না খেয়ে মরবেনা। একটি পরিবারের জন্য মাসে মাত্র চার হাজার টাকা দিয়ে তাদের কোনোরকম ডালভাত খাওয়ার ব্যবস্থা করতে পারি।  আপনার টাকায় সে পরিবারটির জন্য খাবার পৌঁছে দেবে ই-ক্যাবের মানসেবা টিম। আপনার দায়িত্ব শুধু অনুদান দিয়ে পাশে থাকা।

 

 

১০.

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে আমাদের পূর্বসুরীরা আমাদের জন্য বিজয় ছিনিয়ে এনেছে। এজন্য তাদেরকে রক্ত দিতে হয়েছে। বুলেটের সামনে পেতে দিতে হয়েছে বুক। আমরা যারা যুদ্ধের সুযোগ পাইনি। আমাদের আজ সুযোগ এসেছে যুদ্ধ করার।

না ট্যাংকের সামনে গিয়ে ‍বুক চিতিয়ে দাড়াতে হবেনা। শত্রুর স্টেনগানের সামনে নিজেকে সপে দিতে হবে না। শুধু ঘরে থেকে নিজের সামর্থ অনুযায়ী গরিব মানুষদের পাশে দাড়াতে হবে। মনে রাখবেন, একাত্তরের মতো এই যুদ্ধেও আমাদের একসাথে লড়তে হবে। তবে আসবে বিজয়।

আর যদি আমরা না লড়ে নিজেকে লুকিয়ে রাখি তাহলে পরবর্তী প্রজন্মের কাছে এজন্য আমাদের জবাবদিহি করতে হবে। আসুন আমরা লড়াই করি। ঘরে বসেই হাতে হাত রাখি। আপনার হাত থেকে পাওয়া অনুদান মানবসেবা ডট কমের মাধ্যমে পৌঁছে যাবে। সেসব মানুষদের হাতে যারা আমাদের জন্য সারাবছর নানা কাজ করে থাকেন। তাই আসুন তাদের পাশে দাঁড়াই। মানসেবা ডট কম এর সাথে থাকি।  কার্ড কিংবা ব্যাংক যেকোনোভাবেই আপনি অনুদান দিতে পারেন।

 

লেখা: জাহাঙ্গীর আলম শোভন

673 total views, 3 views today

Comments

comments