ই-কমার্স: ২০২১

ই-কমার্স: ২০২০

বিগত বছরগুলোতে ই-কমার্সখাতে প্রবৃদ্ধি ছিল ২৫%। গত বছর এই প্রবৃদ্ধি ঘটেছে দ্বিগুনের কাছাকাছি। এই হিসেবের সমর্থন বিভিন্ন সূত্র থেকে পাওয়া যাবে। যেমন ই-ক্যাবের সদস্য প্রতিষ্ঠান যেখানে আগে ছিল ১০০০, সেখানে এখানে ১৪০০। এখানে প্রায় ৪০%। ফেসবুক ভিত্তিক প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বৃদ্ধির হার এর চেয়ে অনেক বেশী।

সবার ক্ষেত্রে চিত্রটা একই রকম নয়। কিছু প্রতিষ্ঠান প্রথমদিকে ক্ষতিগ্রস্থও হয়েছে। আবার কারো কারো প্রবৃদ্ধি বাজারের গড় প্রবৃদ্ধির চেয়ে বেশী এমনকি নিত্যপণ্য প্রতিষ্ঠানগুলো ২০০% এর বেশী গ্রোথ করেছে। এছাড়া অনলাইন বুকশপগুলো 20% গ্রোথ করেছে। ইলেকট্রনিক্স শপগুলোর গ্রোথ 30% এর মতো। ফুড ডেলিভারী সেবা বেড়েছে ১৫০% এছাড়া প্রতিটি পণ্যভিত্তিক অনলাইন শপের ক্ষেত্রে নতুন নতুন প্রতিষ্ঠান ও পণ্য যুক্ত হয়েছে। তারাও সেল করছে।

আগামী বছরও এই ধারা অব্যাহত থাকবে।  এর মধ্যে নতুন যেসব প্রতিষ্ঠান যুক্ত হয়েছে। তার মধ্যে একটা বড়ো অংশ হলো প্রচলিত প্রতিষ্ঠানগুলোর যারা প্রচলিত ব্যবসার পাশাপাশি অনলাইন অপারেশন চালু করেছে।

 

২০২০ সালে ই-ক্যাবের সদস্য বৃদ্ধি-১০০০+৪০০=১৪০০

করোনাকালীন সময়ে নিত্যপণ্য সরবরাহ ৩০০০ কোটি টাকা

২০২০ সালে মোট নিত্যপণ্য সরবরাহ ৪৫০০ কোটি টাকা

২০২০ সালে ডিজিটাল লেনদেন- ১৬ হাজার কোটি টাকা

করোনার প্রথম দিকে কিছু কর্মসংস্থান হারালেও পরে কয়েকটা প্রতিষ্ঠান তাদের টিম বড়ো করেছে। এবং কিছু নতুন প্রতিষ্ঠান যুক্ত হয়েছে। ২০২০ সালের শেষের দিকে প্রতিদিন ই-কমার্স ডেলিভারী ১ লাখ ৫০ হাজার। এটা শুধু পণ্য ডেলিভারী এছাড়া সেবাতো রয়েছে।

বিশ্বব্যাপী খুচরা ই-কমার্সের বাজার ২০১৮ তে ২.৯৮, ২০১৯ সালে যেখানে ছিল- ৩.৫৩ ট্রিলিয়ন ডলার।

২০২০ এ ৪.২০৬, ট্রিলিয়ন ডলার, ২০২১ এর প্রত্যাশা ৪.৯২ ট্রিলিয়ন ডলার, ২০২২ হবে ৫.৬৯ সালে এই বাজার ধারণা করা হচ্ছে- ৬.৫৪ ট্রিলিয়ন ডলার। যা ৩ বছরে দ্বিগুনের কাছাকাছি হবে।

সূত্র: https://www.statista.com/

জাহাঙ্গীর আলম শোভন

93 total views, 3 views today

Comments

comments