অনেকেই ই-কমার্স সাইটের প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফি নিয়ে বিপদে আছেন। আমি নিজেও ছিলাম। এখানে আমি আমার বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে কিছু বিষয় শেয়ার করলাম।

photography

মডেল দিয়ে প্রোডাক্টের ছবিঃ সবাই শুরুতেই এটাই করতে চায়। আমিও এভাবেই শুরু করেছিলাম। কিন্তু এখন আমার মনে হচ্ছে ই- কমার্স এর জন্য এই ধরনের পদক্ষেপ নেয়াটা উচিত না, যদি ইনভেস্টমেন্ট কম থাকে তাহলে ত অবশ্যই না। এই ধরনের ফটোগ্রাফিতে প্রোডাক্ট অনুযায়ী খরচ পরে অনেক বেশী। মডেল পাওয়া দুস্কর, এবং প্রোডাক্ট এর সাপ্লাই এর সাথে তাল মিলিয়ে ফটোগ্রাফি করা যায় না। দেখা যায় যে প্রোডাক্ট চলে আসছে, মডেল পাওয়া যাচ্ছে না, ফটোগ্রাফার টাইমলি আসছে না, ইত্যাদি। এক্ষেত্রে ফটোগ্রাফার এবং মডেল এর কাছে প্রোডাক্ট জিম্মি হয়ে যায়। আরেকটা বিশাল সমস্যা হল এই ভাবে অনেক ভাল কোয়ালিটির ছবি তুলতে চাইলে অনেক বেশী টাকা খরচ করতে হয়। কম টাকায় করালে অই কোয়ালিটি পাওয়া যায় না। আরেকটা বড় সমস্যা হল, মডেল দিয়ে ছবি তুললে অনেক ক্ষেত্রেই প্রোডাক্ট এর আসল চেহারা চেঞ্জ হয়ে যায়। মডেলকে সুন্দর না দেখালে প্রোডাক্ট ভাল লাগবে না, কিন্তু মডেল কে সুন্দর করতে গেলে প্রোডাক্ট এর কালার ও চেহারা চেঞ্জ হয়ে যায়। এটা একটা বিশাল সমস্যা। আর আপনি কিছু ছবি প্রোডাক্ট এর রাখলে আর কিছু ছবি মডেল সহ রাখলে সেটা জগাখিচুড়ী হয়ে যাবে। এক্সট্যাসি/ডোরস/আরটিস্টি এর মত বিশাল বাজেট এর ব্র্যান্ড এর জন্য মডেল দিয়ে ফটোগ্রাফি করা মানায়, আমাদের মত ছোট উদ্দোক্তার জন্য এটা মোটেও সহজ নয়। তবে যদি পরিচিত কোন মানুষ কিংবা বন্ধু বান্ধব দিয়ে মডেলিং করাতে পারেন তাহলে গায়ে পড়িয়ে ছবি তুলতে পারেন, সেটা আরও ভাল হয়।

আমার মনে হয়, শুধু প্রোডাক্ট এর ছবি রাখাটাই যুক্তিযুক্ত হবে, তবে সেটা কোনভাবেই কোথাও থেকে কপি করে আনা উচিত নয়। মডেল দিয়ে ফটোগ্রাফি করা বেশ খরচের ব্যাপার। অথচ এই টাকা দিয়ে নিজেই স্টুডিও করে নিতে পারেন। যারা নিজেরাই নিজেদের প্রোডাক্ট এর ছবি তুলতে চান তাদের জন্য কিছু টিপস দিলাম।

আপনার যা যা লাগবে,

১। যদি জামা কাপর আপনার প্রোডাক্ট হয়, তাহলে ম্যানিকুইন লাগবে। মহিলা ম্যানিকুইন এর দাম পরবে ৫০০০টাকা আর পুরুষটার দাম পরবে ৭০০০টাকার মত।

জামা কাপর না হলে আপনার ম্যানি কুইন লাগবে না।

২। ক্যামেরাঃ সব থেকে ভাল হবে আপনি যদি একটা ডি এস এল আর ক্যামেরা কিনতে পারেন। কারন ডি এস এল আর দিয়ে ছবি অনেক শার্প আসে, জুম করলে ছবি ফাটে না, ছবি তোলার সময় ক্যামেরা নড়ে কম আর নরলেও ছবিতে কোন ইফেক্ট পড়ে না। একটা ডি এস এল আর ক্যামেরার দাম ৩০,০০০টাকা থেকে শুরু আর এর সাথে যদি ভাল লেন্স কিনতে পারেন তাহলে আরো ভালো। ইউজড ডি এস এল আর কিনতে পারেন, সে ক্ষেত্রে হয়ত ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকার মধ্যে পাবেন। ডি এস এল আর ক্যামেরা খালি কিনলেই হবে না। এর বেসিক ফাংশন না জানলে ভাল ছবি তুলতে পারবেন না। বেসিক জানা খুব একটা কঠিন কিছু না। ইউটিউবে ভিডিও পাবেন, এছাড়া, পরিচিত কোন ফটোগ্রাফারের কাছ থেকে ফাংশন গুলা বুঝে নিতে পারেন।

ডি এস এল আর কিনতে না পারলে, ডিজিটাল ক্যামেরা ব্যাবহার করতে পারেন। সেক্ষেত্রে ছবি অতটা শার্প আসবে না আর ক্যামেরার মুভমেন্ট এর কারনে ছবিতে ঘোলা আসবে। ট্রাইপড ব্যবহার করলে ক্যামেরার নড়াচড়া নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব।

এছাড়াও অনেক মোবাইল ফোনের ক্যামেরা বেশ ভাল মানের হয়। আপনার মোবাইল ফোনের ক্যামেরা ভাল মানের (কমপক্ষে ৮ মেগাপিক্সেল) হলে মোবাইল ফোন দিয়ে প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফি করতে পারেন। মোবাইল ফোনের ক্যামেরা ছবি তোলার সময় নড়ে গেলেও বেশ ভাল মানের ছবি তুলতে পারে।

৩। লাইটিংঃ যদি আপনি ডি এস আল আর ক্যামেরা ব্যবহার করেন, তাহলে লাইটিং খুব একটা সমস্যা না। অনেকেই বলবে লাইটিং ই মুল বিষয়, কিন্তু মনে রাখবেন ঐ ধরনের ফটোগ্রাফির জন্য যে ধরণের লাইটিং দরকার তা ব্যায়বহুল। সাধারন প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফিতে যদি ডি এস এল আর ব্যবহার করতে পারেন, তাহলে লাইটিং খুব একটা সমস্যা করতে পারবে না। এছাড়া একটি ভাল ফ্ল্যাশ কিনে নিলে আরও ভাল হয়। আপনি বাসার একটা রুম এ তিন দিকে তিনটা এনার্জি বাল্ব লাগিয়েও অনেক ভাল ছবি তুলতে পারবেন। ডি এস এল আর না থাকলে অবশ্যই ভাল লাইটিং লাগবে। সেক্ষেত্রে লাইটিং নিজে বানিয়ে নিতে পারেন। লাইট স্ট্যান্ড, লাইট আর আম্ব্রেলা দিয়ে সফট লাইট বানানো যায়। গুগলে সার্চ করেন অনেক আইডিয়া পাবেন।

৪। এডিটিং সফটওয়্যারঃ এইটা মাস্ট। লাগবেই, তা আপনি যে ক্যামেরা দিয়েই ছবি তুলেন না কেন। ফটোশপ এর ম্যাজিক ক্রপ, ক্লোনিং, এডজাস্টমেন্ট ব্রাশ এই ধরনের ব্যাসিক জিনিসগুলোর ব্যবহার শিখলেই আপনার জন্য যথেষ্ট। ইউটিউবে অনেক ভিডিও আছে, একটু সময় ব্যয় করলেই এগুলা শিখতে পারবেন।

সবার মত প্রথম প্রথম আমিও প্রফেশনাল ফটোগ্রাফার ও মডেল দিয়ে সেশন করিয়েছিলাম, কিন্তু পরে আর এফোরড করতে পারি নাই। আর প্রোডাক্ট এর চেহারা এই ধরনের ফটোগ্রাফিতে খুব একটা ফুটে না বলে আমার মনে হয়। তাই, ওটা বাদ দিয়ে এখন নিজেই ছবি তুলার ব্যবস্থা করে নিয়েছি। নিজে নিজেও অনেক ভাল ছবি তুলা যায়, যদি আপনি কিছু বেসিক জিনিষ ভালোভাবে শিখে নেন।

লেখকঃ মোঃ নাফিজুর রহমান https://www.facebook.com/nfzrmn

16,949 total views, 3 views today

Comments

comments

Your email address will not be published.